A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

এবার 'সম্ভাব্য ধ্বংসাবশেষ'এর দেখা পেল চীনা অনুসন্ধান বিমান | Probe News

প্রোবনিউজ, ডেস্ক: মালয়েশিয়ার নিখোঁজ বিমানের অনুসন্ধান তৎপরতায় যুক্ত এক বিমান সম্ভাব্য ধ্বংসাবশেষ দেখার দাবি করেছে। ভারত মহাসাগরেই এই ধ্বংসাবশেষের দেখা মিলেছে বলে দাবি তাদের। অস্ট্রেলিয়া জানিয়েছে, বিষয়টি সম্পর্কে তারা জেনেছেন এবং সম্ভাব্য ওই ধ্বংসাবশেষ খুঁজে পেতে চেষ্টা করছেন।
এরআগে ফ্রান্সের স্যাটেলাইটে নিখোঁজ হওয়া মালয়েশিয় বিমানের সম্ভাব্য ধ্বংসাবশেষের ছবি ধরা পড়ার কথা জানিয়েছে মালয়েশিয়া। এক সপ্তাহের মধ্যে এ নিয়ে উড়োজাহাজটির তৃতীয় সম্ভাব্য ধ্বংসাবশেষের ছবির কথা প্রকাশ করা হলো। তিনটি অবস্থানই দক্ষিণ ভারত মহাসাগরে।

এদিকে মালয়েশিয়া এয়ারলাইনসের বিমানটির খোঁজে রোববার আরও আটটি বিমান অনুসন্ধান অভিযানে যোগ দেয়। মালয়েশিয়ার পরিবহন মন্ত্রণালয়ের ফেসবুক পাতায় রোববার এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘ফ্রান্সের স্যাটেলাইটে সম্ভাব্য ধ্বংসাবশেষের নতুন ছবি পাওয়া গেছে। ফ্রান্সের কাছ থেকে পাওয়া ওই ছবি অস্ট্রেলিয়ায় উড়োজাহাজ খোঁজার সমন্বয় কেন্দ্রে পাঠানো হচ্ছে।’ বিবৃতিতে আরও জানানো হয়, ফ্রান্সের স্যাটেলাইটের তোলা ছবিতেও সম্ভাব্য ধ্বংসাবশেষের অবস্থান ভারত মহাসাগরের দক্ষিণ অংশে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। বলা হচ্ছে, আগের স্যাটেলাইট ছবিতে ধ্বংসাবশেষের যে আকার উল্লেখ করা হয়েছে, এর আকারও প্রায় তেমনই। তবে এর অবস্থান আগের সম্ভাব্য ধ্বংসাবশেষের অবস্থান থেকে ৯৩০ কিলোমিটার উত্তর দিকে।

এর আগে চীনের স্যাটেলাইটের ছবিতেও উড়োজাহাজের সম্ভাব্য ধ্বংসাবশেষের অবস্থান ভারত মহাসাগরের দক্ষিণ অংশেই বলে জানানো হয়। অস্ট্রেলিয়ার সমুদ্র নিরাপত্তাবিষয়ক কর্তৃপক্ষের (এএমএসএ) মুখপাত্র আন্ড্র্রে হেওয়ার্ড-মাহের জানান, গতকাল অনুসন্ধান অভিযান আরও জোরালো হয়েছে। অভিযানে আরও আটটি বিমান যুক্ত হয়েছে। আগের চেয়ে বাড়ানো হয়েছে অনুসন্ধানের বিস্তৃতিও।

সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা জানান, অনুসন্ধানে যোগ দেওয়ার জন্য চীনের দুটি বিমান অস্ট্রেলিয়ার পার্থে গিয়ে পৌঁছেছে। জাপানও দুটি বিমান পাঠিয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার নৌবাহিনীর জাহাজ এইচএমএএস সাকসেস ভারত মহাসাগরের অনুসন্ধান এলাকায় রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র, চীন ও যুক্তরাজ্যের জাহাজ অনুসন্ধান এলাকার পথে রয়েছে। অনুসন্ধান কার্যক্রমের সমন্বয়কারী এএমএসএর কর্মকর্তা মাইক বার্টন জানান, শনিবার সাগরে বেল্ট, ফিতা ও কাঠের টুকরার মতো যেসব আলামত দেখার কথা বলা হচ্ছিল, তার ওপর ভিত্তি করেই রোববারের অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এএমএসএর এক বিবৃতিতে বলা হয়, রোববার অনুসন্ধান এলাকা বিস্তৃত করে ৫৯ হাজার বর্গকিলোমিটার করা হয়েছে। তবে সংশ্লিষ্ট এলাকার আবহাওয়া অনুকূল নয়। অস্ট্রেলিয়ার আবহাওয়া বিভাগ গতকাল জানায়, রোববারসহ পুরো সপ্তাহে ওই এলাকায় গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি আর মেঘ থাকতে পারে। এমনটা হলে অনুসন্ধান এলাকায় স্বাভাবিক দৃষ্টিসীমা কমে আসবে। ব্যাহত হবে অনুসন্ধান কার্যক্রম।

মালয়েশিয়া এয়ারলাইনসের একটি বোয়িং ৭৭৭-২০০ ইআর উড়োজাহাজ ৮ মার্চ রাতে ২৩৯ জন আরোহী নিয়ে কুয়ালালামপুর থেকে বেইজিং যাওয়ার পথে নিখোঁজ হয়। যাত্রা শুরুর এক ঘণ্টা পরই রাডারের সঙ্গে উড়োজাহাজটির যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়।

প্রোব/বান/জাতীয় ২৪.০৩.২০১৪

 

২৪ মার্চ ২০১৪ | আন্তর্জাতিক | ১১:২০:৪৮ | ২০:৪৪:২২

আন্তর্জাতিক

 >  Last ›