A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

কুষ্টিয়ায় সংঘর্ষে আহত ৬, জাপা প্রার্থীর ভোট বর্জন | Probe News

প্রোব নিউজ, কুষ্টিয়া: কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে সকাল সাড়ে সাতটার দিকে জয়রামপুর গ্রামে ভোট শুরুর আধা ঘণ্টা আগে বিএনপি ও আওয়ামী লীগের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এতে উভয় পক্ষের ছয়জন আহত হন। নির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ এনে জাতীয় পার্টির (জাপা) সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী আলী আকবর বেলা ১১টার দিকে ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন।
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, সকাল সাড়ে সাতটার দিকে বিএনপি-সমর্থিত চেয়ারম্যান প্রার্থী শহিদুল ইসলাম সরকারের পোলিং এজেন্ট শাহিন ও আক্কাচ কেন্দ্রে যাচ্ছিলেন। এ সময় পথের মধ্যে আওয়ামী লীগের সমর্থিত প্রার্থী ফিরোজ আল মামুনের সমর্থক খলিলুর রহমানসহ কয়েকজন তাঁদের বাধা দেন। এ নিয়ে উভয় পক্ষের লোকজনের মধ্যে বাগবিতণ্ডার একপর্যায়ে সংঘর্ষ বেধে যায়। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের ছয়জন আহত হন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। খলিলুর রহমান দাবি করেন, ‘বিএনপির লোকজন উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে আমাদের লোকজনের ওপর চড়াও হয়ে মারধর করে। এতে আমি নিজেও আহত হয়েছি।’
সকাল আটটা থেকে সাড়ে নয়টা পর্যন্ত পিপুলবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে বিএনপির সমর্থিত প্রার্থীর কোনো এজেন্টকে দেখা যায়নি। ওই কেন্দ্রে ওই সময় ভোটারদের উপস্থিতি ছিল না বললেই চলে। সকাল পৌনে ১০টার দিকে চকঘোগা কেন্দ্রেও ভোটার চোখে পড়েনি। সকাল ১০টার দিকে পূর্ব তারাগুনিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে পুরুষ ভোটারের উপস্থিতি বেশি ছিল।
বিএনপি-সমর্থিত প্রার্থী শহিদুল ইসলাম সরকার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে অভিযোগ করেন, কামালপুর, বোয়ালিয়া, বিলগাথুয়া, চিলমারী, কল্যাণপুর, মাদিয়া, আমদহ, মরিচা, পিপুলবাড়িয়া এলাকার ভোটকেন্দ্রগুলোতে তাঁর এজেন্টদের যেতে দেওয়া হচ্ছে না। কয়েকটি কেন্দ্র থেকে এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে।
এ ব্যাপারে জানতে দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বেলায়েত হোসেন ও সহকারি রিটার্নিং কর্মকর্তা মোকতার হোসেনের মুঠোফোনে কয়েকবার ফোন করলেও তাঁরা ফোন ধরেননি।
দৌলতপুর উপজেলায় জাপা-সমর্থিত প্রার্থী আলী আকবর বেলা ১১টার দিকে ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়ে অভিযোগ করেন, আওয়ামী লীগ-সমর্থিত প্রার্থী ফিরোজ আল মামুনের লোকজন সব কেন্দ্র দখল করে নিচ্ছেন। প্রশাসনকে জানিয়েও কোনো প্রতিকার পাওয়া যায়নি। তাঁর দাবি, আল্লাহর দরগা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র দখল হওয়ায় তিনি নিজের ভোটও দিতে পারেননি।
প্রোব/মুআ/কুষ্টিয়া ২৩.০৩.১৪

২৩ মার্চ ২০১৪ | জাতীয় | ১২:১৪:৪৮ | ১৩:০৯:১২

জাতীয়

 >  Last ›