A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

তিন পর্বে নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান | Probe News

প্রোবনিউজ, ঢাকা: তিনধাপে মোট ২৯৫টি উপজেলা পরিষদের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। এর মধ্যে চেয়ারম্যান পদে তিন দফায় বিএনপি সমর্থিত ২২৪ জন প্রার্থীর মধ্যে বিজয়ী হয়েছেন ১২৩ জন। আওয়ামী লীগ সমর্থিত ২৯৫ জন প্রার্থীও মধ্যে জিতেছেন ১১৭ জন। আর বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামির মোট প্রার্থী ছিল ৭৮ জন। এদেও মধ্যে জিতেছেন ২৯ জন।
এ ছাড়া জাতীয় পার্টি, জেএসএস, ইউপিডিএফ, স্বতন্ত্র প্রার্থী এবং মহা জোটের অন্যান্য শরীক দল মিলে আরো ২৩ জন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন।
বেসরকারিভাবে নির্বাচনী ফলাফল বিশ্লেষণে দেখা যায়, প্রথম পর্বে ১৯ ফেব্রুয়ারি মোট ৯৮টি উপজেলা পরিষদেও নির্বাচন হয়। ক্ষমতাসীণ দল আওয়ামী লীগ এ নির্বাচনে সবকটি আসনে প্রার্থী দিলেও চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন ৩৪ জন। বিএনপি সমর্থিত ৭০ জন প্রার্থীর মধ্যে ৪৫ জন এবং জামায়াতের ২৮ জন প্রার্থীও মধ্যে ১৩ জন বিজয়ী হন। স্বতন্ত্র ও অন্যান্য দলের ৬ জন পার্থী বিজয়ী হয়েছেন।
দ্বিতীয় পর্বে ১১৬টি উপজেলায় ২৭ ফেব্রুয়ারি নির্বাচন হয়েছে। চেয়ারম্যান পদে সবকটি আসনে প্রার্থী দিলেও আওয়ামী লীগ সমর্থিত বিজয়ী চেয়াম্যানের সংখ্যঅ ৪৬জন। আর বিএনপির ৯৬ জনের মধ্যে জিতেছেন ৫২ জন। জামায়েতর ২৬জন প্রার্থীও মধ্যে জিতেছেন ৮জন। স্বতন্ত্রসহ অন্যান্য দলের আরও ১০জন চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন।
তৃতীয় পর্বে ৮১টি উপজেলায় ১৫ মার্চ নির্বাচন হয়েছে। চেয়ারম্যান পদে সবকটি আসনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ছিল । তাদের বিজয়ী চেয়ারম্যানের সংখ্যা ৩৭জন। বিএনপির ৫৮ জন প্রার্থীর মধ্যে জিতেছেন ২৬ জন। জামায়াতের ২৪ জন প্রার্থীর মধ্যে জিতেছেন ৮জন। স্বতন্ত্রসহ অন্যান্য দলের আরও ৭ জন চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন। এ পর্বে ৩টি উপজেলায় নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা করেছে নির্বাচন কমিশন।
তবে তৃতীয় পর্বের নির্বাচনে ব্যাপক অনিয়ম, কেন্দ্র দখল, জাল ভোট ও সহিংসতা হয়েছে। নির্বচনী সংঘর্ষে ২ জন এবং পুলিশের গুলিতে ১জন নিহত হয়। বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী প্রোবকে বলেন, ক্ষমতাসীন দল, সহিংসতা ও কেন্দ্র দখল না করলে এবং সুষ্ঠু ভোট হলে বিএনপি অনেক বেশি আসনে বিজয়ী হবে।’
সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন)-–এর সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার প্রোবনিউজকে জানান, ‘প্রথম পর্বের নির্বাচন ছাড়া বাকি দুটিতে চরম বিশৃঙ্খলা ও সহিংসতা হয়েছে। নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ ছিল না। এ ক্ষেত্রে নির্বাচন কমিশনের ব্যর্থতা রয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘নির্বাচন সুষ্ঠু ও স্বচ্ছ হলে এর ফলাফল ভিন্ন রকম হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।’
প্রোব/পার/জাতীয়/২২.০৩.২০১৪
২২ মার্চ ২০১৪  জাতীয়

 

২২ মার্চ ২০১৪ | জাতীয় | ১১:৫১:৩৯ | ১২:০২:২১

জাতীয়

 >  Last ›