A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

বার্মা বাংলাদেশ সীমান্তে নতুন চেকপোস্ট নির্মাণ করছে | Probe News

Myanmar BD Border1বার্মা বাংলাদেশ সীমান্তে নতুন চেকপোস্ট নির্মাণ করছে

 

প্রোব নিউজ, ডেস্ক: মায়ানমার থেকে জানা গিয়েছে যে তারা তাদের ঝঞ্জা বিক্ষুব্ধ রাখাইন রাজ্য ও বাংলাদেশ সীমান্তে নতুন করে আরো চেকপোস্ট নির্মাণ করবে। এ বৃহস্পতিবার সেদেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তাদের পার্লামেন্টকেও এই চেকপোস্ট নির্মাণের তথ্যটি জানিয়েছে।

পার্লামেন্টে রাখাইন রাজ্যের প্রতিনিধি মিস্টার থিন শ ওয়াই, যিনি মূলত বাংলাদেশ সীমান্ত বরাবর নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করার পক্ষে কাজ করছেন তিনি ভয়েজ অফ আমেরিকাকে বলেন বাংলাদেশ থেকে অবৈধ অনুপ্রবেশকারীরা সহজেই বার্মায় প্রবেশ করতে পারছে কারণ এ সীমান্তে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যাবস্থা নেই।

তিনি বলেন "যদিও বার্মার পশ্চিমে রাখাইন রাজ্যের মুয়াং ডাও অঞ্চলে বাংলাদেশের সাথে সীমান্ত বেষ্টনী রয়েছে, কিন্তু তা অবৈধ প্রবেশ ঠেকাতে যথেষ্ট না। বাংলাদেশের জনসংখ্যা একদিকে বাড়ছে আর সাথে সাথে অবৈধ প্রবেশও বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমরা শুধু এই অবৈধ অনুপ্রবেশ দূর থেকেই দেখছি, কিন্তু কোন কার্যকরী পদক্ষেপ নিতে পারছি না। আমরা সীমান্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা বৃদ্ধি করার জন্য পার্লামেন্টে সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব রেখেছি। তবে এরই মাঝে সীমান্তে আরও ১৫ টি প্রবেশ দ্বার নির্মাণ করা হবে বলে জেনেছি। অবৈধ প্রবেশ এবং সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এই পদক্ষেপ কার্যকরী হবে বলে আমি আশাবাদী।"

এদিকে বার্মা সরকারের মুখপাত্র মিস্টার ইয়ে টাট নতুন নিরাপত্তা ব্যবস্থার পরিকল্পনা করা হচ্ছে বলে নিশ্চিত করেছেন। এক্ষেত্রে স্থানীয় কর্মকর্তাদের সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে চূড়ান্ত পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

এদিকে স্থানীয় সরকারের নিরাপত্তা কর্মকর্তা এ বিষয়ে কোন মন্তব্য দিতে রাজি হননি।

২০১২ সালে বৌদ্ধ ও মুসলিম সহিংসতায় যে ২৪০ জন নিহত এবং ১৪০,০০০ গৃহহীন হয় তারা ছিল মূলত রোহিঙ্গা মুসলিম। বার্মার সরকার বরাবরই এই রোহিঙ্গাদেরকে অনুপ্রবেশকারী বাঙ্গালী হিসাবেই মনে করে থাকে।

বার্মার সরকার সাধারণ ভাবে রোহিঙ্গাদের নাগরিক হিসাবে স্বীকৃতি দেয় না। শুধুমাত্র তারাই সরকারী স্বীকৃতি পাওয়ার অধিকার রাখে যারা প্রমান দেখাতে পারে যে ১৮২৩ সাল অর্থাৎ ব্রিটিশরা রাখাইন রাজ্য দখলে নেয়ার আগ থেকেই এ এলাকায় বসবাস করছে।

এদিকে এটা এখন পরিস্কার যে গত মাসে বার্মিজ প্রেসিডেন্ট মিস্টার থেইন সেইন ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার মাঝে যে আঞ্চলিক বৈঠক হয়ে গেল সেটা রোহিঙ্গা সমস্যার সমাধানে তেমন কোন ভূমিকা রাখতে পারেনি।

প্রোব/জেকে/দক্ষিন এশিয়া ২১.০৩.১৪

 

২১ মার্চ ২০১৪ | দক্ষিণ এশিয়া | ২১:৪৭:৪৩ | ১৯:২৬:৪৮

দক্ষিণ এশিয়া

 >  Last ›