A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা নূর অস্বীকার করলেও ৩কোটি টাকা দেয়ার কথা ফের জানালো ইসলামী ব্যাংক | Probe News

প্রোবনিউজ, ঢাকা: সংস্কৃতিমন্ত্রী অস্বীকার করলেও ইসলামী ব্যাংক কর্তৃপক্ষ দাবি করেছে, ‘লাখো কণ্ঠে জাতীয় সংগীত’ গাওয়ার আয়োজনে তারা ৩ কোটি টাকা দিয়েছে। ’ ইসলামী ব্যাংকের তরফে জানানো হয়, ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবসে সরকারি ওই আয়োজনে তাদের পক্ষ থেকে ৩ কোটি টাকা দেয়া হয়েছে।
ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট আতাউর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, “লাখো INU.jpgকণ্ঠে জাতীয় সংগীত আয়োজনের জন্য ১৪ মার্চ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে তিন কোটি টাকা অনুদানের চেক তুলে দেন ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের ভাইস চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মুস্তাফা আনোয়ার।” ওই সময় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত এবং প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী উপস্থিত ছিলেন বলেও জানান আতাউর। গেলো ১৫ই মার্চ ব্যাংকের পক্ষ থেকে এ সংক্রান্ত একটি সংবাদ বিজ্ঞপ্তিও পাঠানো হয়েছিল বলেও জানান তিনি।
এরআগে ইসলামী ব্যাংকের টাকা দিয়ে জাতীয় সঙ্গীতের অনুষ্ঠান ঠিক হবে না বলে মন্তব্য করেন তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু। এর পরপরই খোদ অনুদানের বিষয়টিই অস্বীকার করেছেন সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর।
মঙ্গলবার দুপুরে বাংলা একাডেমিতে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ইসলামী ব্যাংকের টাকা ফেরত দেয়া উচিত। শেখ হাসিনা সরকারের ভুলত্রুটি থাকতে পারে, তারপরও একমাত্র এই সরকারই একটি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ার সাহস দিতে পারে।” তথ্যমন্ত্রী বলেন, “যুদ্ধাপরাধীদের যেমন ছাড় দেয়া যাবে না তেমনি জঙ্গিবাদকেও ছাড় দেয়া যাবে না। ইবলিশ এবং ফেরেশতাদের মধ্যে যেমন সংলাপ হতে পারে না তেমনি জঙ্গিবাদের সঙ্গে গণতন্ত্রেরও কোনো সংলাপ হতে পারে না।”
অন্যদিকে সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর ‘লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ অনুষ্ঠানের জন্য ইসলামী ব্যাংকের কাছ থেকে অনুদান নেওয়ার অভিযোগ সঠিক নয় বলে দাবি করেছেন Nur.jpgসংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। মঙ্গলবার সচিবালয়ে নিজ মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, ‘এটা শতভাগ নিশ্চিত যে লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা তহবিলে ইসলামী ব্যাংকের কোনো চেক গ্রহণ করা হয়নি। ইচ্ছা করলে আপনারাও যাচাই করে দেখতে পারেন।’
লাখো কণ্ঠে জাতীয় সংগীত শুরু হবে বেলা ১১টায়। প্যারেড গ্রাউন্ডের প্রবেশদ্বার খোলা হবে ভোর সাড়ে ছয়টায়। সকাল ১০টায় বন্ধ করে দেওয়া হবে। প্রবেশের সময়ই ডিজিটাল পদ্ধতিতে লোকসংখ্যা গণনা হয়ে যাবে। মাঠে ছয় হাজার ব্লক থাকবে। প্রতি ব্লকে ৫০ জন করে লোক থাকবে। গিনেস বুকের নির্ধারিত পর্যবেক্ষকেরা দেখবেন সবাই গাইছেন কি না। জাতীয় সংগীত হিসেবে ‘আমার সোনার বাংলা’ গানটির ১০ লাইন গাওয়া হবে। অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে যদি শতকরা পাঁচ ভাগ লোকও গানে কণ্ঠ না মেলান, তবে আয়োজনটি রেকর্ডের জন্য বিবেচিত হবে না।
মোট তিনবার গানটি গাওয়ার সুযোগ পাওয়া যাবে। সংগীত পরিচালনা করবেন বিশিষ্ট সুরকার স্বাধীন বাংলা বেতারকেন্দ্রের শব্দসৈনিক সুজেয় শ্যাম।
অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বক্তব্য দেবেন। ‘লাখো কণ্ঠে সোনার বাংলা’ এই আয়োজনে ৪৫ মিনিটের একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানও থাকবে। এতে অংশ নেবেন দেশের বিশিষ্ট ও নতুন প্রজন্মের খ্যাতিমান শিল্পীরা। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আগ্রহী যে কেউ জাতীয় প্যারেড গ্রাউন্ডে অংশ নিয়ে লাখো কণ্ঠের সঙ্গে নিজের কণ্ঠটি মিলিয়ে দিয়ে অংশ হতে পারবেন এক গৌরবময় ইতিহাসের।

প্রোব/বান/জাতীয় ১৮.০৩.২০১৪

১৮ মার্চ ২০১৪ | জাতীয় | ১৮:৫৯:০৬ | ১২:৫০:৩০

জাতীয়

 >  Last ›