A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

পাকিস্তানের ফেভার্ড নেশন হতে যাচ্ছে ভারত | Probe News

প্রোব নিউজ, ডেস্ক: বাণিজ্যে শুল্ক কমানোর শর্তে ভারতকে মোস্ট ফেভার্ড নেশন-এমএফএন’র ঘোষণা দিতে সম্মত হয়েছে পাকিস্তান।
শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের নেতৃত্বে মন্ত্রীসভার বিশেষ বৈঠকের পর এই ঘোষণা দেয়ার কথা রয়েছে। পাকিস্তানের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের নির্ভরযোগ্য সূত্রের বরাত দিয়ে একথা জানিয়েছে দেশটির সংবাদ মাধ্যম ডন ডট কম।
গেলো জানুয়ারিতে এমএফএন’র মর্যাদা দিতে ভারতের কাছে শর্ত সাপেক্ষে এক প্রস্তাব রাখেন পাকিস্তানের বাণিজ্যমন্ত্রী খুররাম দস্তগীর খান। ওই প্রস্তাবে এমএফএন’র পরিবর্তে পাকিস্তানের আড়াই থেকে তিনশটি পণ্যের উপর শুল্ক কমানোর শর্ত দেয়া হয়। তবে সেসময় বাণিজ্যের উদারিকরণের সময় দুই দেশের মধ্যে স্থগিত শান্তি আলোচনা শুরুর বিষয়ে কোন কথা না বলায় বিভিন্ন পর্যায়ে স্টেকহোল্ডারদের মধ্যে অসন্তোষ তৈরি হওয়ায় এমএফএন’র ঘোষণা পিছিয়ে যায়। তা নাহলে ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি সময়ে ভরতের বাণিজ্যমন্ত্রী আনন্দ শর্মার পাকিস্তান সফরের সময় দেশটিকে এই মর্যাদা দেয়ার কথা ছিলো পাকিস্তানের। আর ঘোষণা দেয়া পিছিয়ে যাওয়ায় পাকিস্তান সফরও পিছিয়ে যায় ভারতীয় বাণিজ্যমন্ত্রীর।
এরআগে ২০১৩ সাল থেকে স্থগিত পাক-ভারত দ্বিপাক্ষিক আলোচনার অংশ ছিলো এমএফএন দেশ হিসেবে ভারতে ঘোষণা।
এদিকে এমএফএন ঘোষণার পাকিস্তানের মন্ত্রীসভাকে ভারতের দেয়া প্রস্তাবগুলো তুলে ধরবেন দেশটির অর্থমন্ত্রী ইশাক দার। শর্ত অনুসারে ওয়াগাহ সীমান্ত দিয়ে প্রয়োজনীয় সব ধরণের পণ্য ভারত থেকে আমদানি করবে পাকিস্তান। আর ভারতের কালো নিষেধাজ্ঞার তালিকায় থাকা ১২০৯টি পণ্যকে ওই তালিকা থেকে বাদ দিতে হবে। মন্ত্রীসভায় পাস হওয়ার পর এক নির্দেশনার মাধ্যমে তা জানানো হবে।
নিষেধাজ্ঞা তালিকায় থাকা পণ্য ভারত থেকে পাকিস্তানের আমদানি নিষেধ করা হয়। আর বর্তমানে ওয়াগাহ সীমান্ত দিয়ে মাত্র ১৩৭টি পন্য আমদানি করতে পারে পাকিস্তান। ভারত এরইমধ্যে ছয়মাসের জন্য শুল্ক ৭.৫ শতাংশে নামিয়ে আনার ঘোষণা দিয়েছে। আর আগামি এক বছরের জন্য এই শুল্ক ৫ শতাংশে নামিয়ে আনার কথা রয়েছে। তবে বহি:শুল্ক কমাতে রাজি হয়নি ভারত।
ভারতকে এমএফএন ঘোষনা দিলে রপ্তানিতে টেক্সটাইল খাতে এক বিলিয়ন, সিমেন্ট খাতে ৩০০ বিলিয়ন, কেমিক্যাল খাতে ২০০ মিলিয়ন, কৃষিজ পণ্যে ৩০০ মিলিয়ন এবং খনিজ পণ্যের খাতে ১০০মিলিয়ন ডলার মূল্যের সুবিধা পাবে পাকিস্তান।
তবে এই শর্ত পূরণে পাকিস্তানকেও ওয়াগাহ সীমান্ত ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখতে হবে। তবে ওয়াগাহ সীমান্ত আফগানিস্তান ও মধ্য এশিয়ার দেশগুলোতে প্রবেশে ভারত যাতে ট্রানজিট হিসেবে ব্যবহার করতে না পারে সেজন্য দীর্ঘমেয়াদে পদক্ষেপ নেয়া হবে বলেও জানায় পাকিস্তান।
প্রোব নিউজ/মম/আন্তর্জাতিক/১৮.০৩.২০১৪

১৮ মার্চ ২০১৪ | আন্তর্জাতিক | ১৩:৪৭:৪৪ | ১৬:০২:২৮

আন্তর্জাতিক

 >  Last ›