A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

বিএনপির দুই পক্ষে সংঘর্ষ, গুলিতে নিহত ১ | Probe News

প্রোবনিউজ, ডেস্ক: চতুর্থ দফা উপজেলা নির্বাচনকে সামনে রেখে নেত্রকোনায় বিএনপির দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে গেনু মিয়া (৩২) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।
আজ শনিবার সকাল ১০টার দিকে ফতেপুর ইউনিয়নের ফতেপুর গ্রামের ছত্রকোনা মোড়ে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও এলাকাবাসী জানায়, মদন উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিএনপির প্রার্থী এম এ হারেছ (ঘোড়া)। নির্বাচনে বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী রফিকুল ইসলাম (দোয়াত-কলম)। গতকাল শুক্রবার রাতে পোস্টার ছেঁড়াকে কেন্দ্র করে তাদের দুজনের সমর্থকদের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। এর জের ধরে আজ শনিবার সকালে বিএনপির প্রার্থী এম এ হারেছের সমর্থক রইছ মিয়া গং এবং বিদ্রোহী প্রার্থী রফিকুল ইসলামের সমর্থক সাত্তার মিয়া গংয়ের মধ্যে আবার বাগবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে রইছ মিয়া গংয়ের সমর্থকেরা গুলি ছোড়ে। গুলিতে সাত্তার মিয়া গংয়ের সমর্থক গেনু মিয়া আহত হন। তাঁকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিত্সক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।
এ ব্যাপারে বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী রফিকুল ইসলাম বলেছেন, ‘গতকাল শুক্রবার পোস্টার ছেঁড়াকে কেন্দ্র করে তাঁদের মধ্যে কথা-কাটাকাটি হয়। পরে সকালে ফতেহপুর ছত্রকোনা মোড়ে রইছ উদ্দিনের ছেলে ফয়সালের গুলিতে গেনু মিয়া মারা যান।’
বিএনপির প্রার্থী এমএ হারেছ বলেন, ‘এটা ব্যক্তিগত বিষয়। দলীয় কিছু না। এ সম্পর্কে আর কিছু বলতে পারব না।’
মদন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এস এম মফিজুল ইসলাম বলেছেন, ‘রইছ উদ্দিন গংদের ছোড়া গুলিতে গেনু মিয়ার মৃত্যু হয়েছে। বুকসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে গুলি লেগেছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনি। এ ব্যাপারে থানায় মামলা হয়নি। মামলা প্রক্রিয়াধীন।’
প্রোব/বান/জাতীয় ১৫.০৩.২০১৪

১৫ মার্চ ২০১৪ | জাতীয় | ২০:৩৪:৫৭ | ১৯:২৪:২৭

জাতীয়

 >  Last ›