A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

দেবযানির বিরুদ্ধে ফের অভিযোগ গঠন; গ্রেফতারি পরোয়ানা | Probe News

প্রোবনিউজ, ডেস্ক: ভারতীয় কূটনীতিক দেবযানি খোবরাগাড়ের বিরুদ্ধে আবারো অভিযোগ দাখিল করেছে মার্কিন সরকার। গত শুক্রবার এই অভিযোগটি দায়ের করা হয়। নতুন করে অভিযোগ দায়ের করার কারণে দেবযানি আবারো আমেরিকায় ফিরে গেলে তাকে গ্রেফতার করা হবে বলে জানিয়েছেন মার্কিন কৌসুঁলিরা। আর মার্কিন কৌসুঁলিদের এই পদক্ষেপের কারণে ভারত-আমেরিকা সম্পর্কে আবারো চিড় ধরতে পারে বলে আশংকা করা হচ্ছে।

ভিসা জালিয়াতির অভিযোগে একটি এবং ভিসা আবেদনে নিজের গৃহ-পরিচারিকার সম্মানি নিয়ে ক্রমাগত মিথ্যা তথ্য দিয়ে যাওয়ার অভিযোগে আরেকটি মামলায় অভিযুক্ত হয়েছেন দেবযানি খোবরাগাড়ে। শুক্রবার ম্যানহাটনে মার্কিন অ্যাটর্নি এসব অভিযোগে মামলাটি দাখিল করেন। দক্ষিণ নিউ ইয়র্কে আমেরিকার অ্যাটর্নি কার্যালয়ের মুখপাত্র জেরিকা রিচার্ডসন জানান, দেবযানির বিরুদ্ধে একটি গ্রেফতারি পরোয়ানাও জারি করা হয়েছে।
কূটনৈতিক দায়মুক্তির বিষয় বিবেচনা করে এবং আমেরিকা-ভারত কূটনৈতিক সম্পর্কের কথা মাথায় রেখে দেবযানির বিরুদ্ধে আমেরিকার দায়ের করা প্রথম মামলাটি মার্কিন আদালত গত বুধবার খারিজ করে দেয়ায় ওই মামলা থেকে অব্যাহত পান দেবযানি। কিন্তু তার পর দিনই নতুন করে আরেকটি অভিযোগ গঠন করা হলো ভারতীয় এই কূটনীতিকের বিরুদ্ধে। দেবযানির বিরুদ্ধে দায়ের করা আগের মামলাটি বুধবার খারিজ হয়ে যাওয়ার পর ম্যানহাটনে মার্কিন অ্যাটর্নি প্রিত ভারারের মুখপাত্র জেমস মার্গোলিন জানান, আদালত সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগের অভিযোগ বাতিল হয়ে গেলেও দেবযানির বিরুদ্ধে নতুন মামলা করতে কোনো বাধা নেই। তাই এখন যথাযথভাবে নতুন একটি মামলা করা হচ্ছে।
এদিকে, গত জানুয়ারিতে দেবযানি আমেরিকা ছাড়ার পর থেকে নয়া দিল্লীতে অবস্থিত ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে বর্তমানে কর্মরত আছেন। মার্কিন কৌসুঁলিদের নতুন করে এই অভিযোগ গঠন সম্পর্কে দেবযানির অ্যাটর্নি ড্যানিয়েল আর্শাক শুক্রবার এক বিবৃতিতে জানান, এই বিষয়ে ভারত সরকার খুব শিগগিরই প্রতিক্রিয়া জানাবে। আমেরিকার ভারতীয় দূতাবাসে ডেপুটি কনসাল জেনারেল হিসেবে কর্মরত থাকাকালীন ২০১৩ সালের ১২ ডিসেম্বর নিউ ইয়র্কে দেবযানিকে গ্রেফতার করার পর তাকে বিবস্ত্র করে তল্লাশি করে মার্কিন পুলিশ। এ সময় দেবযানির বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল যে তিনি তার গৃহকর্মীর ভিসা আবেদনের সময় মিথ্যা তথ্য দিয়েছেন এবং পরবর্তীতে গৃহকর্মীকে চুক্তি অনুযায়ী পারিশ্রমিক দেননি। এই অভিযোগে গ্রেফতার হওয়ার পর ভারত-আমেরিকার সম্পর্কে ছন্দপতন ঘটে এবং ভারত সরকার দেবযানির কূটনৈতিক দায়মুক্তির দাবি পরিত্যাগ করতে অস্বীকৃতি জানায়। ফলে পরে দেবযানি জামিনে ছাড়া পেয়ে ভারত সরকারের হস্তক্ষেপে নিউ ইয়র্কে জাতিসংঘের স্থায়ী মিশনে ভারতের জ্যেষ্ঠ কূটনীতিক হিসেবে নিয়োগ পেলেও পরে মার্কিন ফেডারেল আদালতের গ্র্যান্ড জুরি দেবযানির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। এরই ধারাবাহিকতায় মার্কিন সরকার দেবযানিকে অবিলম্বে আমেরিকা ত্যাগ করার নির্দেশ দিলে চলতি বছরের ১০ জানুয়ারি তিনি দেশে ফিরে আসেন।
প্রোব/বান/আন্তর্জাতিক ১৫.০৩.২০১৪

১৫ মার্চ ২০১৪ | আন্তর্জাতিক | ১৩:৫১:২৮ | ১৫:৪৫:১৭

আন্তর্জাতিক

 >  Last ›