A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

ওরিয়নের বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মাণে স্থিতাবস্থার নির্দেশ | Probe News

প্রোবনিউজ, নারায়নগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় ওরিয়ন গ্রুপের ১০২ মেগাওয়াট ক্ষমতার তেলভিত্তিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রের জন্য বুড়িগঙ্গার ওপরে অবকাঠামো নির্মাণে স্থিতাবস্থা জারি করেছে হাইকোর্ট। চলতি মার্চ মাস থেকেই ওই বিদ্যুৎ কেন্দ্রে পরীক্ষামূলক উৎপাদন শুরু হওয়ার কথা । আদালত অবমাননার একটি অভিযোগের সম্পূরক আবেদনের শুনানি করে বিচারপতি মো. আশফাকুল ইসলাম ও মো. আশরাফুল কামালের বেঞ্চ বুধবার এই আদেশ দেয়।
পাশাপাশি অভ্যন্তরীণ নৌ পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআইডব্লিউটিএ) চেয়ারম্যান ও পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে তলব করেছে আদালত। আগামী ৮ এপ্রিল তাদের আদালতে হাজির হয়ে ‘রায় বাস্তবায়নে’ ব্যর্থতার বিষয়টি ব্যাখ্যা করতে হবে।
‘ফতুল্লায় বুড়িগঙ্গা খেয়ে ওরিয়নের বিদ্যুৎ কেন্দ্র’ শিরোনামে গত ৩ মার্চ কালের কণ্ঠে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন যুক্ত করে আবেদনটি করা হয়। আদালতে আবেদনকারী পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট মনজিল মোরসেদ। তিনি বলেন, নদী রক্ষায় হাই কোর্ট রায় দিয়েছিল। সেই রায় বাস্তবায়ন না করায় আদালত অবমাননার রুলও দেয়া হয়। এরপরও দায়িত্ব পালন না করায় দুই সরকারী কর্মকর্তাকে তলব করেছে হাই কোর্ট।
ওরিয়ন গ্রুপের সহযোগী প্রতিষ্ঠান ডিজিটাল পাওয়ার অ্যান্ড অ্যাসোসিয়েটস লিমিটেড ওই বিদ্যুৎ কেন্দ্রটি নির্মাণ করছে। ২০১২ সালের ১ অগাস্ট প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে এ বিষয়ে চুক্তি করে বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড। কালের কণ্ঠের প্রতিবেদনে বলা হয়, নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার কাশিপুরে বুড়িগঙ্গা নদী দখল করে ওরিয়ন গ্রুপ ওই বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণ করছে। বুড়িগঙ্গার এ অংশে নদীর সীমানা থেকে অন্তত ৬০ ফুট ভেতরে বিদ্যুৎকেন্দ্রটি স্থাপনের কাজ প্রায় শেষ করে আনা হয়েছে।
“১০২ মেগাওয়াটের তেলভিত্তিক এই কেন্দ্র নির্মাণের জন্য পরিবেশের চূড়ান্ত অনুমতি নেয়ারও প্রয়োজন মনে করেনি ওরিয়ন। এ ধরণের বিদ্যুৎকেন্দ্র স্থাপনে এনভায়রনমেন্টাল ইমপ্যাক্ট অ্যাসেসমেন্ট (ইআইএ) বাধ্যতামূলক হলেও পরিবেশ অধিদপ্তরের অনুমোদন নেয়া হয়নি।”

হিউম্যান রাইটস অ্যান্ড পিস ফর বাংলাদেশের করা একটি রিট আবেদনে বেশ কিছু নির্দেশনাসহ ঢাকার চার নদী রক্ষায় ২০০৯ সালের ২৫ জুন একটি রায় দেয় হাই কোর্ট। পরে আপিল বিভাগও ওই রায় বহাল রাখে।
ওই রায় বাস্তবায়ন না করায় আদালত অবমাননার আবেদন করলে ২০১১ সালের ১২ জুলাই বিআইডব্লিউটিএ চেয়ারম্যান ও পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালকসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার রুল দেয় হাই কোর্ট। ওই আবেদনেই সম্পূরক হিসাবে ওরিয়নের বিষয়ে এই আবেদন করা হয়।
প্রোবনিউজ/বান/জাতীয়/০৫.০৩.২০১৪

৫ মার্চ ২০১৪ | জাতীয় | ১৫:১৫:১১ | ১২:৫৪:১৫

জাতীয়

 >  Last ›