A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

ভোটার তথ্যভাণ্ডার নির্বাচন কমিশনের কাছে হস্তান্তর না করায় সুজন’র উদ্বেগ হুমকিতে জাতীয় নিরাপত্তা ও নাগরিকদের ব্যক্তিগত গোপনীয়তা | Probe News

ভোটার তথ্যভাণ্ডার নির্বাচন কমিশনের কাছে হস্তান্তর না করায় সুজন’র উদ্বেগ
হুমকিতে জাতীয় নিরাপত্তা ও নাগরিকদের ব্যক্তিগত গোপনীয়তা

SUJAN_Voter Data Center.jpgপ্রোবনিউজ, ঢাকা: নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ভোটার তথ্যভাণ্ডার নির্বাচন কমিশনের কাছে হস্তান্তর না করায় উদ্বেগ প্রকাশ করেছে স্থানীয় নাগরিক সংগঠন সুশাসনের জন্যে নাগরিক-সুজন। সংগঠনটির মতে, সময় পার হওয়ার দুই বছর পরেও দেশের নয় কোটি ভোটারের তথ্য সম্বলিত ভাণ্ডারে নিয়ন্ত্রণ কমিশনের ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের হাতে থাকায় জাতীয় নিরাপত্তা ও নাগরিকদের ব্যক্তিগত গোপনীয়তা আজ হুমকির মুখে।
বৃহস্পতিবার বিকেলে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে এ উদ্বেগের কথা জানিয়েছে সুজন। সংস্থাটির সভাপতি ও তত্ত্বাবধায়ক সরকারের সাবেক উপদেষ্টা এম হাফিজ উদ্দিন এবং সুজন’র সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার স্বাক্ষরিত ওই বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ২০১২ সালের ৩০ জুনের মধ্যে ভোটার তথ্যভাণ্ডার নির্বাচন কমিশনের কাছে হস্তান্তর করারর কথা থাকলেও প্রতিষ্ঠানটি এখনো তা করেনি। অন্যদিকে জাতীয় একটি দৈনিকে দেয়া স্বাক্ষাৎকারে নির্বাচন কমিশনার বলেছেন, আইন অনুযায়ী নিবন্ধন-সংক্রান্ত কর্মকাণ্ড পরিচালনা করবে নিবন্ধন বিভাগ। প্রকল্পের কর্মকর্তারা প্রকল্প বাস্তবায়ন করবেন। এক্ষেত্রে জাতীয় পরিচয়পত্র তৈরিতে সহযোগিতা করা ছাড়া ভিন্ন কোনো দায়িত্ব নির্বাচন কমিশনের নেই। এমনকি নিবন্ধনকাজ বা এই বিভাগের তথ্যভাণ্ডারে খবরদারি করার এখতিয়ারও তাদের নেই।’
নির্বাচন কমিশনের এধরনের বক্তব্যে উদ্বেগ প্রকাশ করে এম হাফিজ উদ্দিন এবং ড. বদিউল আলম মজুমদার বলেন, তার এই বক্তব্য জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন আইনের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয়।
বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, ‘জাতীয় পরিচয় নিবন্ধন আইন ২০১০’ এর ৬ ধারা অনুযায়ী, নির্বাচন কমিশন জাতীয় পরিচয়পত্র নিবন্ধন কাজ পরিচালনা, পরিচয়পত্র প্রস্তুত, বিতরণ ও রক্ষণাবেক্ষণসহ আনুষঙ্গিক সব দায়িত্ব পালন করবে। এছাড়া আইন অনুযায়ী, এ তথ্যভাণ্ডারের চাবি বা পাসওয়ার্ড নির্বাচন কমিশনের কাছেই থাকবে। কিন্তু নির্ধারিত সময় পার হওয়ার দুই বছরের মাথায়ও ভোটার তথ্যভাণ্ডারের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারেনি কমিশন।
এদিকে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের কাছে ভোটার তথ্যভাণ্ডারের নিয়ন্ত্রণ থাকায় ঝুঁকি কথা তুলে ধরে ওই বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের যে কেউ চাইলেই কম্পিউটারের একটি বাটনে চাপ দিয়ে তথ্যভাণ্ডার থেকে নয় কোটি ১৯ লাখ ৫০ হাজার ভোটারের যাবতীয় তথ্য মুছে ফেলতে পারে। এছাড়াও অরক্ষিত হয়ে পড়েছে নগরিকদের ব্যক্তিগত তথ্যের নিরাপত্তা ও গোপনীয়তা।
তাই জাতীয় নিরাপত্তা ও নাগরিকদের ব্যক্তিগত তথ্যের গোপনীয়তার স্বার্থে ভোটার তথ্যভাণ্ডারের চাবি বা পাসওয়ার্ড নির্বাচন কমিশনের অধীনে নেয়াসহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে যে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে তা তদন্তের আহ্বান জানিয়েছে সুজন।
প্রোব/শর/জাতীয়/ ১৯.৬.২০১৪

১৯ জুন ২০১৪ | জাতীয় | ১৮:২২:৫৬ | ১৪:২০:১০

জাতীয়

 >  Last ›