A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

চিলির বিপক্ষে স্পেনের বাঁচা-মরার লড়াই | Probe News

চিলির বিপক্ষে স্পেনের বাঁচা-মরার লড়াই

Match Preview Spain Vs Chile.jpgপ্রোবনিউজ, ডেস্ক : বিশ্বকাপের যাত্রা পথে বিশাল সুমদ্র পাড় করতে হবে স্পেনকে। প্রথম ম্যাচে নেদারল্যান্ডসের কাছে ৫-১ গোলে বিধ্বস্ত হওয়ায় চিলির বিপক্ষে অনুষ্ঠেয় ম্যাচটি স্পেন আর ক্যাসিয়াসের জন্য পরিণত হয়েছে অনেকটা বাঁচা-মরার লড়াইয়ে। রিও ডি জেনেরোর মারাকানা স্টেডিয়ামে দ্বিতীয় ম্যাচে চিলির বিপক্ষে ড্র করলে কিংবা হেরে গেলেও বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায় নিতে হবে স্পেনকে। ইকার ক্যাসিয়াসের দল সেই দিকে হাঁটতে চাইবে না। তার চাইতে বরং অল-আউট আক্রমণে চিলিকে পরাস্ত করার দিকেই লক্ষ্য স্থির দৃষ্টি থাকবে ক্যাসিয়াসদের।
২০০২ সালে ব্রাজিলকে হারিয়ে নিজেদের প্রথম বিশ্বকাপ শিরোপা জেতার পরের আসরেই গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিতে হয় ফ্রান্সকে। এর আট বছর পরে একই ভাগ্য বরণ করে চারবারের শিরোপা জয়ী ইতালিরও। স্পেনের ভাগ্যেও কী তাই! প্রথম ম্যাচে হেরে যাওয়ায় এবার একই আশঙ্কা সৃষ্টি হয়েছে স্পেনকে নিয়েও। শুধু হার নয়, স্পেনকে ভাবাচ্ছে হারের ব্যবধানটাও। তাছাড়া টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে এ ধরনের হার খেলোয়াড়দের মনোজগতে বড় ধরনের প্রভাব ফেলতে বাধ্য। তবে এটাও সত্যি এখান থেকেও ঘুরে দাঁড়ানোর সামর্থ্য আছে স্পেনের। চাইলে তারা অনুপ্রেরণা খুঁজতে পারে গত বিশ্বকাপ থেকেও। সুইজারল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে হেরেও শেষ পর্যন্ত দুর্দান্ত এক প্রত্যাবর্তনের ইতিহাস লেখে তারা। জিতে নেয় প্রথম বিশ্বকাপ শিরোপা।
চিলির বাঁধা টপকে নক-আউট রাউন্ডের পথে এগিয়ে যেতে সে ধরনের একটা পারফরম্যান্সই দেখাতে হবে স্পেনকে। এটা এমন একটা ম্যাচ যে ম্যাচে নিজেদের আক্রমণ সামর্থ্যের শতভাগ ব্যবহার করতে হবে স্পেনকে। তাই ম্যাচের প্রথম মিনিট থেকেই আক্রমণাত্মক ফুটবল আশা করছেন কোচ ভিসেন্তে দেল বস্কও। কোচ ভিসেন্তে দেল বস্ক মনে বলেন, ‘একজন স্ট্রাইকারের বদলে দু'জনকে খেলালে কিংবা ফলস নাইন পজিশনে কাউকে ব্যবহার করলেও ভুল হবে না।’
অন্যদিকে, চিলির খেলাটা হবে অনেকটা কৌশল নির্ভর। এই ম্যাচে জয় কিংবা পারফরম্যান্সের চাইতে ফলনির্ভর খেলা খেলতে চাইবে। এজন্য যে, প্রথম ম্যাচে অস্ট্রেলিয়াকে ৩-১ গোলে হারিয়ে এর মধ্যে তিন পয়েন্ট তুলে নিয়েছে তারা। স্পেনের বিরুদ্ধে ড্র করতে পারলে এই গ্রুপ থেকে স্পেনকে টপকে নক-আউট রাউন্ডে চলে যাওয়াও কঠিন হবে না তাদের।
তবে, স্পেনের মতো আক্রমণ নির্ভর দলের বিরুদ্ধে তাদের অতি রক্ষণাত্মক কৌশল খুব বেশি কাজে আসবে। স্পেন যদি খেলার শুরুতেই একটা গোল করে ফেলতে পারে, সেক্ষেত্রে বাধ্য হয়েই আক্রমণে যেতে হবে চিলিকেও। সেক্ষেত্রে আসল লাভটা হবে ফুটবল প্রেমীদের। জাভি-ইনিয়েস্তা-ফ্যাব্রিগাসদের পাসিং ফুটবলের বিপরীতে অ্যালেক্সিস সানচেজদের পাল্টা আক্রমণে দারুণ জমবে খেলা। আগের ম্যাচে হাস্যকর এক ভুল করে সমালোচিত হওয়া স্পেন এ ম্যাচে ইকার ক্যাসিয়াসকে গোলপোস্টের নিচে রাখবে কিনা সে নিয়ে প্রশ্ন করতে পারেন অনেকে। কিন্তু এতো সহজে ক্যাসিয়াসের উপর থেকে আস্থা হারাবেন না দেল বস্ক। কারণ, একটি ম্যাচ দিয়ে আপনি কখনোই একজন খেলোয়াড়কে মাপতে পারেন না। ভুলটি কখনোই ক্যাসিয়াসের সারা জীবনের অর্জনকে মুছে ফেলতে পারবে না। কিন্তু অভিজ্ঞতা আর অর্জনে ক্যাসিয়াসের রয়েছে একটি বিশ্বকাপ এবং দুটি ইউরো আসরে দলকে শিরোপা জেতানোর রেকর্ড। আর রিয়াল মাদ্রিদের হয়ে অজস্র অর্জন তো থাকছেই। সুতরাং স্পেনকে এমন বিপর্যয় থেকে রক্ষা করতে পারেন ক্যাসিয়াসই।
ডাচ-অস্ট্রেলিয়া মুখোমুখি : রাতের প্রথম ম্যাচে নেদারল্যান্ডসের বিরুদ্ধে লড়বে এশিয়ার হয়ে বিশ্বকাপ খেলুড়ে দল অস্ট্রেলিয়া। বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে ডাচদের বিরুদ্ধে গোলের কোন সুযোগই সৃষ্টি করতে পারেনি। অপরদিকে, নেদারল্যান্ডস টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের ওভাবে গুড়িয়ে দিয়েছে। এতে তাদের আত্মবিশ্বাসের মাত্রাটা বেড়ে গেছে। এখন দুর্বল-সবল সবধরনের প্রতিপক্ষকেই ধরাশায়ী করতে পারবে তারা। আরিয়েন রোবেন-রবিন ফন পার্সিদের তীব্র আক্রমণ থেকে বাঁচতে সকারুজরা রক্ষণাত্মক কৌশল বেছে নিতে পারেন। এতে হয়তো বড় ব্যবধানে অস্ট্রেলিয়ার দ্বিতীয় পরাজয় হবে না। ম্যাচে নাটকীয় কিছু ঘটাতেও পারে।
ক্যামেরুন-ক্রোয়েশিয়ার লড়াই : ব্রাজিলের বিপক্ষে অসাধারণ খেলেছে ক্রোয়েশিয়া। নিজেদের সামর্থ্যে প্রথম ম্যাচে গোল না পেলেও ব্রাজিলের বিরুদ্ধে তাদের খেলা নিঃসন্দেহে মন কেড়েছে সবার। পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের বিপক্ষে জয় না পাওয়ার গ্লানি মুছতে চাইবে আগের ম্যাচে মেক্সিকোর বিপক্ষে হার মানা ক্যামেরুনের ভাগ্যে। অন্যদিকে, ক্যামেরুন বিশ্বকাপে আত্মবিশ্বাসের ক্লান্তিতে ভুগছে। ইনজুরিতে রয়েছে অধিনায়ক এবং সবচেয়ে বড় তারকা স্যামুয়েল ইতো। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে মাঠে ফিরতে পারলে কিছু একটা করা সম্ভব হতে পারে তাদের। সবমিলিয়ে ক্যামরুন বনাম ক্রোয়েশিয়ার ম্যাচটি হবে বেশ উত্তাপের। কেননা উভয় দলই প্রথম ম্যাচে পরাজয়ের স্বাদ নিয়ে ফেলেছে।
প্রোব/এহ/শর/খেলা/ ১৮.০৬.২০১৪

১৮ জুন ২০১৪ | খেলা | ১১:৩৬:৪৫ | ১০:৩১:৫৪