A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

বাজেট খতিয়ে না দেখেই সংবাদ সম্মেলন ডাকলেন রওশন | Probe News

বাজেট খতিয়ে না দেখেই সংবাদ সম্মেলন ডাকলেন রওশন

Rowshon20131213002449.jpgপ্রোবনিউজ, ঢাকা: আগামী ২০১৪-১৫ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট খতিয়ে না দেখেই বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলন ডাকলেন বিরোধী দলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ। গণমাধ্যমের সামনে তিনি নিজেই স্বীকার করেছেন এ কথা। তিনি বলেন, আমরা এখনো বাজেটের চুলচেরা বিশ্লেষণ করিনি। বিশ্লেষণ করেই সংসদে বাজেট নিয়ে কথা বলবো। তিনি এও বলেন, পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদের বাজেট প্রতিক্রিয়া একান্তই তাঁর নিজস্ব।

মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় সংসদের মিডিয়া সেন্টারে বাজেটোত্তর সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন তিনি। ৪০ মিনিটের পুরো সংবাদ সম্মেলনে বাজেট নিয়ে কোন সমালোচনাই করেননি রওশন। বাজেট কেমন হওয়া চাই- এনিয়ে নিজস্ব মতামত তুলে ধরেন তিনি।

তিনি বলেন, সেই বাজেট চাইনা, যেই বাজেটে চাহিদা পূরণ হয়না। জনগণের আয়-ব্যয় নিয়ন্ত্রণে থাকে এমন বাজেট চাই। তেল, লবনসহ সকল নিত্যপণ্য সূলভ মূল্যে পাওয়া যায়, এমন বাজেট চাই। এমন বাজেট হতে হবে যাতে করে আমদানী নয়, রপ্তানি বেড়ে যায়। পরিবেশ দুষণ বন্ধ হয়ে যাবে, কর্ম সংস্থানের সৃষ্টি হবে আমরা এমন বাজেটই চাই।

রওশন বলেন, অর্থমন্ত্রী অনেক সুন্দর একটি বাজেট দিয়েছেন। কিন্তু কোন কোন মন্ত্রণালয়ে কত বরাদ্ধ তা এখোনো আমরা খতিয়ে দেখতে পারিনি। বাজেট শুধু মন্ত্রণালয়েরই নয়, বরং বাজেট থাকবে সর্বজনীন। আমরা চাই একটা জনবান্ধব বাজেট।

রওশনের এসব বক্তব্যের পরেই একের পর এক প্রশ্ন করতে থাকেন সাংবাদিকরা। কিন্তু কোন প্রশ্নেরই সঠিক জবাব দেননি রওশন। সব প্রশ্নের উত্তরে একটা কথাই বলেছেন যে আমাদের শিল্প উৎপাদন বাড়াতে হবে।

অর্থমন্ত্রী বলেছেন, ‘বাজেট উচ্চাভিলাষী’, এরশাদ বলেছেন ‘স্বপ্ন বিলাসী’, আপনি কি বলবেন? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে রওশন বলেন, এরশাদ যা বলেছেন একান্তই তা তাঁর ব্যক্তিগত মতামত।
বিরোধী দল হিসাবে জাতীয় পার্টি বাজেটকে প্রত্যাখ্যান করছে না স্বাগত জানাচ্ছে এমন প্রশ্নের কোন সঠিক জবাব দেননি রওশন। তিনি বলেন, আমি তো বলেছি, শিল্প উৎপাদন বাড়াতে হবে। তাহলে বাজেট বাস্তবায়ন হবে।

আপনি কেমন বাজেট চান সেটা বারবার বলেছেন, কিন্তু প্রস্তাবিত এই বাজেটে কি আপনার সেই চাওয়ার প্রতিফলন ঘটেছে? উত্তর দিতে পারেননি রওশন। তিনি বলেন, চুলচেরা বিশ্লেষণ করে বলবো।

রাজনৈতি স্থীতিশীলতা ছাড়া বাজেট বাস্তবায়ন সম্ভব কিনা? তাছাড়া দেশের রাজনীতি এখন স্থীতিশীল কিনা? বিরোধী দলীয় নেতা হিসাবে আপনি কি মনে করেন? এ প্রশ্নের জবাবে রওশন বলেন, ‘আগে সাংবাদিকদের সাথে ভালো একটা লিয়াঁজো হওয়া দরকার। আপনারা খালি আক্রমণ করে যাবেন। এটা তো হতে পারে না। তাছাড়া, আমরা ফাইল ছোড়াছোড়ি করিনা বলেই আমাদেরকে সত্যিকার বিরোধী বলতে চায়না কেউ। এর আগে তো কেউ সত্যিকারের বিরোধী দলের আচরণ করেনি।’ অবশ্য রওশন তার বক্তব্যের এক ফাঁকে স্বীকার করেন দেশে রাজনৈতিক স্থীতিশীলতা নেই। আর রাজনৈতিক স্থীতিশীলতা না থাকলে বাজেট বাস্তবায়ন সম্ভব নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

রওশনের এমন বক্তব্য প্রসঙ্গে একজন সাংবাদিক প্রশ্ন করেন- ‘আপনাদের দলের জ্যেষ্ঠ নেতা জিএম কাদেরই স্বয়ং বিরোধী দল হিসাবে জাতীয় পার্টি নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন। তিনি এও বলেছেন, জাপার তিন মন্ত্রীর পদত্যাগ করা উচিত।’ এ ব্যাপারে আপনার মন্তব্য কি? কোন জবাব দেননি রওশন। পাশে থেকে বিরোধী দলীয় চীফ হুইপ তাজুল ইসলাম চৌধুরী বলে উঠেন, তিনিও (জিএম কাদের) তো মন্ত্রী ছিলেন।

দেশে বর্তমানে সুশাসন প্রতিষ্ঠিত কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে রওশন বলেন, আপনার বুঝে নেন। আমি তো বলেছি সুশাসন না হলে বাজেট বাস্তবায়ন সম্ভব নয়।

প্রসঙ্গত, শনিবার দুপুরে বনানীর নিজ কার্যালয়ে বাজেট পরবর্তী এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন এরশাদ। এরশাদ দাবি করেন ওটাই ছিলো বিরোধী দলের বাজেট প্রতিক্রিয়া সংবাদ সম্মেলন। ওই সংবাদ সম্মেলনে প্রতিরক্ষা খাত ছাড়া প্রায় সব খাতের সমালোচনা করেন এরশাদ। এরশাদ আরো বলেছেন, বাজেট উচ্চাভিলাষী নয়, বরং স্বপ্ন বিলাসী। রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা, বিচারবহির্ভূত হত্যাকান্ড, গুম-খুন, অপহরণ বন্ধ না হলে এ বাজেট কোনভাবেই সফল হবে না। তাই বাজেটকে আমরা স্বাগত জানাচ্ছি না। এর সফলতা নিয়েও সংশয় প্রকাশ করছি। কারণ এই বাজেটের ভিত অনেক নড়বড়ে। বিরোধী দলের সংবাদ সম্মেলনে বিরোধী দলীয় নেতা অনুপস্থিত কেন? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে সেদিন এরশাদ বলেছিলেন, আমি রওশনের পক্ষ থেকে প্রতিক্রিয়া উপস্থাপন করছি।


প্রোব/বিএইচ/পি/রাজনীতি/১০.০৬.২০১৪

১০ জুন ২০১৪ | জাতীয় | ১৪:২৩:৪০ | ১১:২৪:০৬

জাতীয়

 >  Last ›