A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

নূর হোসেনের মালামাল ক্রোকে অভিযান শুরু | Probe News

নূর হোসেনের মালামাল ক্রোকে অভিযান শুরু

N Nur.jpgপ্রোবনিউজ, নারায়ণগঞ্জ: অপহরণের পর নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলামসহ সাতজনকে খুনের মামলার প্রধান আসামি নূর হোসেনের অস্থাবর সম্পত্তি ক্রোক (জব্দ) করতে অভিযান শুরু করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে সিদ্ধিরগঞ্জ উপজেলার শিমরাইলের টেকপাড়ায় নূর হোসেনের বাড়িতে এ অভিযান চালায় যায় পুলিশ। বাড়ির সামনে পুলিশের কয়েকটি ট্রাক রাখা হয়েছে।
সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলাউদ্দিন সাংবাদিকদের জানান, আদালতের নির্দেশে অস্থাবর সম্পদ ক্রোক করতে অভিযান চালাচ্ছেন তারা। কয়েকটি ট্রাক নিয়ে আসা হয়েছে। ক্রোক করা মালামাল এসব ট্রাকে করে নিয়ে যাওয়া হবে।

এর আগে বুধবার সন্ধ্যায় দুপুরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নারায়ণগঞ্জ গোয়েন্দা ( ডিবি) পুলিশের পরিদর্শক (তদন্ত) মামুনুর রশিদ মণ্ডলের এক আবেদনের প্রেক্ষিতে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কেএম মহিউদ্দিন মালামাল ক্রোকের এ আদেশ দেন।

উল্লেখ্য, গত ২৭ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ থেকে একসঙ্গে প্যানেল মেয়র নজরুল ইসলাম, তার বন্ধু মনিরুজ্জামান স্বপন, তাজুল ইসলাম, লিটন, নজরুলের গাড়িচালক জাহাঙ্গীর আলম, আইনজীবী চন্দন কুমার সরকার এবং তার ব্যক্তিগত গাড়িচালক ইব্রাহিম অপহৃত হন। পরদিন ২৮ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ থানায় মামলা দায়ের করেন নজরুল ইসলামের স্ত্রী। মামলায় কাউন্সিলর নূর হোসেনকে প্রধান করে মোট ১২ জনকে আসামি করা হয়।

গত ৩০ এপ্রিল বিকেলে নারায়ণগঞ্জের শীতলক্ষ্যা নদী থেকে ছয় জন এবং ১ মে সকালে একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত সবারই হাত-পা বাঁধা ছিল। পেটে ছিল আঘাতের চিহ্ন। প্রতিটি লাশ ইটভর্তি দুটি করে বস্তায় বেঁধে ডুবিয়ে দেয়া হয়। গত ৩ মে নূর হোসেনের সিদ্ধিরগঞ্জের বাসায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ ১৬ জনকে গ্রেপ্তার এবং রক্তমাখা মাইক্রোবাস জব্দ করে। এরপর গ্রেপ্তার করা হয় আরো ৭ জনকে।

এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় র্যা ব-১১ এর কয়েকজন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্টতার অভিযোগ করেন নিহত প্যানেল মেয়র নজরুলের পরিবারের সদস্যরা। নজরুল ইসলামের শ্বশুর অভিযোগ করেন, ছয়কোটি টাকার বিনিময়ে র্যা বকে দিয়ে ওই সাতজনকে হত্যা করিয়েছেন নূর হোসেন। এরপর থেকেই তিনি পলাতক রয়েছে।

গত ১০ মে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের কার্যকরী সভায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নূর হোসেনকে থানা আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কার করা হয়।
প্রোব/খোআ/জাতীয় ১৫.০৫.২০১৪

 

১৫ মে ২০১৪ | জাতীয় | ১৬:৫৮:৩৬ | ১২:২৭:৩৫

জাতীয়

 >  Last ›