A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

চার জুন ফের তদন্তের অগ্রগতি জানানোর নির্দেশ | Probe News

সেভেন মার্ডার

চার জুন ফের তদন্তের অগ্রগতি জানানোর নির্দেশ

Nganj 1.jpgপ্রোবনিউজ, ঢাকা: অপহরণের পর নারায়ণগঞ্জে সাতজনকে খুনের ঘটনা তদন্তে নিয়োজিত সবপক্ষকে আগামী চার জুন অগ্রগতি প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

হাইকোর্টের নির্দেশে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় গঠিত তদন্ত কমিটির অগ্রগতি প্রতিবেদনসহ সাতটি প্রতিবেদনের বিষয়ে শুনানি নিয়ে বৃহস্পতিবার বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুরের হাইকোর্ট বেঞ্চ এ নির্দেশ দেন।

এ সময় আদালত বলেন, "আমরা কোনো বাহিনীর বিরুদ্ধে তদন্ত করতে বলিনি। নারায়ণগঞ্জের ঘটনায় র্যা বের সংশ্লিষ্ট যারা দায়িত্বে ছিলেন তাদের বিরুদ্ধে তদন্ত করতে বলেছি।"

সিআইডির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে সাক্ষীরা আতঙ্কগ্রস্ত একথা উল্লেখ করে আদালত বলেন, "সাক্ষীরা যাতে নির্বিঘ্নে সাক্ষী দিতে পারে তার জন্য যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হোক। আর শুধু নিহত সাতজনের পরিবারকেই নিরাপত্তা দিলে হবে না, সাক্ষীদেরও যথাযথ নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে হবে।"

আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানিতে অংশ নেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। তাকে সহায়তা করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ এস এম নাজমুল। অন্যদিকে রিটকারীর পক্ষে শুনানি করেন অ্যাডভোকেট সুব্রত চৌধুরী।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকাল পৌনে ১১টার দিকে হাইককোর্টের ওই বেঞ্চে উপস্থিত হয়ে ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ এস এম নাজমুল প্রতিবেদনের বিষয়টি আদালতের নজরে আনলে আদালত বিকেলে শুনানির সময় নির্ধারণ করেন।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল আদালতকে জানান,অগ্রগতি প্রতিবেদনগুলো তৈরি হয়েছে এবং দুপুরে এসব প্রতিবেদন আদালতে দাখিল করবেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। পরে আদালত দুপুরে শুনানির সময় নির্ধারণ করেন।

প্রসঙ্গত,গত ২৭ এপ্রিল নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম ও আইনজীবী চন্দন সরকারসহ সাতজনকে অপহরণ করা হয়। এ ঘটনার তিন দিন পর শীতলক্ষ্যা নদী থেকে ছয়জনের এবং পরদিন আরো একজনের লাশ উদ্ধার করা হয়।

এ ঘটনায় গত ৫ মে বিচারপতি মো. রেজাউল হক ও বিচারপতি গোবিন্দ চন্দ্র ঠাকুর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ নারায়ণগঞ্জে সাত খুনের ঘটনায় প্রকাশিত প্রতিবেদন বিবেচনায় নিয়ে স্বতঃপ্রণোদিত রুল জারির পাশাপাশি অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ দেন।

আদেশে সাতজনকে অপহরণ ও হত্যার ঘটনায় প্রশাসন, র্যা বসহ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের কোনো গাফিলতি আছে কি-না, তাসহ পুরো ঘটনা তদন্তে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের একজন অতিরিক্ত সচিবের নেতৃত্বে সাত সদস্যের কমিটি গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয়।

এ ঘটনায় র্যা ব-১১'র সম্পৃক্ততা আছে কি-না, এ বিষয়ে বিভাগীয় তদন্ত করতে র্যা বের মহাপরিচালককেও নির্দেশ দেওয়া হয়।

এছাড়া হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় করা মামলা গোয়েন্দা বিভাগের (ডিবি) পাশাপাশি সিআইডিকে (অপরাধ তদন্ত বিভাগ) তদন্ত করতেও বলা হয়েছে। আদালত সংশ্লিষ্টদের এ আদেশ বাস্তবায়ন বিষয়ে অগ্রগতি জানাতে সাতদিনের সময় দেন এবং ১৫ মে এ বিষয়ে শুনানির দিন নির্ধারণ করেন।

এর পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার সংশ্লিষ্ট সব পক্ষ হত্যকাণ্ডের ঘটনা অনুসন্ধান বিষয়ে হাইকোর্টে তাদের কার্যক্রম ও ভূমিকা উল্লেখ করে পৃথক প্রতিবেদন দাখিল করে।

প্রোব/খোআ/জাতীয় ১৫.০৫.২০১৪

১৫ মে ২০১৪ | জাতীয় | ১৬:৪৪:৩১ | ২০:২০:০৫

জাতীয়

 >  Last ›