A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

শেষ সময়ের প্রচারণায়ও বাংলাদেশি অভিবাসী প্রসঙ্গ | Probe News

লোকসভা নির্বাচন
শেষ সময়ের প্রচারণায়ও বাংলাদেশি অভিবাসী প্রসঙ্গ
আবারও মোদি-মমতার লড়াই

Modi-attacks-Mamata.jpgপ্রোবনিউজ, ডেস্ক: ১৬ তম লোকসভা নির্বাচনের প্রচারণা শুরু হওয়ার পর পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে দিদি বলে সম্বোধন করে আসলেও সে দিদির সঙ্গেই বেশ কিছুদিন ধরে সম্পর্কটা তিক্ত হয়ে উঠেছে বিজেপির প্রধানমন্ত্রী প্রার্থী নরেন্দ্র মোদির। সারদা বা টেট-কেলেঙ্কারি নিয়ে আক্রমণ ছিল গত কয়েকটি সভাতেই। অন্যদিকে বাংলাদেশি অবৈধ অভিবাসীদের বিতাড়িত করা নিয়ে মোদির বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় মমতার সুরও ছিল চড়া। সম্প্রতি মোদির বিরুদ্ধে বিভাজন তৈরির অভিযোগ তুলে তাঁকে গ্রেপ্তারের দাবিও জানিয়েছেন মমতা।
এবার মমতার সে দাবির প্রসঙ্গ টেনে দিদিকে কটাক্ষ করলেন মোদি। বুধবার কাঁকুড়গাছির এক সমাবেশে মুখে হাসি ধরে রেখে মমতাকে উদ্দেশ্য করে বিজেপির প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী বলেন, বাংলাদেশি অভিবাসীদের বিতাড়িত করা নিয়ে তিনি এখন যে দাবি তুলছেন ২০০৫ সালে পার্লামেন্টে একই দাবি তুলেছিলেন মমতা। মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণের পর গত কয়েক বছরে মমতা বেশ পাল্টে গেছেন বলেও দাবি করেন মোদি। ক্ষমতা ধরে রাখার জন্য মমতা বাংলার ভবিষ্যতকে অন্ধকারে ঠেলে দেবেন কিনা দিদিও কাছে এমন প্রশ্নও ছুঁড়ে দেন তিনি।
মমতার গ্রেপ্তারের দাবির প্রসঙ্গ টেনে মোদি বলেন, “কেন কষ্ট করে কোমরে দড়ি বেঁধে আমাকে জেলে ঢোকাবেন? একশো টাকার দড়ি কিনতে দশ হাজার টাকার টেন্ডার ডাকতে হবে! গুণমান ভাল নয় বলে সেই টেন্ডার বাতিল হবে! আবার নতুন টেন্ডার হবে ১০ হাজার টাকার। এতে বাংলার মানুষের উপরে বোঝা বাড়বে। তার চেয়ে আমাকে বলবেন, আমি নিজে এসে জেলে ঢুকে যাব!’’
সমাবেশ থেকেই তাঁকে গ্রেপ্তার করার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে মোদি বলেন, “আজ অতিথি হয়ে এসেছি। এখান থেকেই ধরুন না! জেলে গেলে বাংলা শিখব। এত মিষ্টি ভাষা। আমার তো কপাল খুলে যাবে!”
এর আগে কৃষ্ণনগর এবং বারাসতের সমাবেশে মোদি সরব হন নারী নির্যাতন নিয়ে। নারীদের সুরক্ষা দেয়া সরকারের কাজ উল্লেখ করে পশ্চিমবঙ্গে মমতা দায়িত্বে থাকার পরও কেন ধর্ষণের ঘটনা ঘটছে তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন মোদি।

এদিকে মোদির এমন সব মন্তব্যে নিশ্চুপ ছিলেন না মমতা বন্দোপাধ্যায়। মোদি যখন বাংলা থেকে শেষ বারের জন্য বিদায় চাইছেন, প্রায় একই সময়ে বেহালায় সভা করছিলেন মমতা। প্রতিক্রিয়ায় তীব্র ক্ষোভ জানিয়ে মমতা বলেন, “তোমার ঔদ্ধত্য ভেঙে দেব! বাংলার মাটিতে প্রচার করতে দিচ্ছি, এটা আমাদের সৌজন্য। চাইলে এক সেকেন্ডে রুখে দিতাম। বিমান থেকে নামতে দিতাম না! কিন্তু এটা বাংলার সংস্কৃতি নয়, তাই করিনি।”
এ দিন চার জেলায় ভোট চলাকালীন মোদির সভা টিভিতে সরাসরি সম্প্রচারের অনুমতি যাতে না দেওয়া হয়, তার জন্য কমিশনের কাছে আর্জি জানিয়েছিল তৃণমূল। তবে শেষ পর্যন্ত সে আবেদন গ্রহণ করেনি কমিশন।
১২ মে শেষ হচ্ছে লোকসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ। ফলাফল ঘোষণা হবে ১৬ মে। এখন পর্যন্ত সবগুলো জনমত জরিপে ভারতের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে এগিয়ে আছেন মোদি। এরইমধ্যে ক্ষমতায় আসামাত্রই অবৈধ বাংলাদেশিদের বিতাড়িত করার হুমকি দিয়েছেন তিনি। আর তাতে ক্ষোভ জানিয়ে আসছেন মমতা।
প্রোব/ফাউ/দক্ষিণ এশিয়া/০৮.০৫.২০১৪

৮ মে ২০১৪ | দক্ষিণ এশিয়া | ১১:৫০:৩৮ | ২২:০০:১৫

দক্ষিণ এশিয়া

 >  Last ›