A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

শুরু হচ্ছে গ্রেটেস্ট শো অব দ্য আর্থ | Probe News

আর ৩৫ দিন
শুরু হচ্ছে গ্রেটেস্ট শো অব দ্য আর্থ


fifa 3.jpgপ্রোব নিউজ, ঢাকা: আর ৩৫ দিন পরই ব্রাজিলে বসছে ২০তম বিশ্বকাপ ফুটবলের চূড়ান্ত পর্যায়ের আসর। ১২ জুন শুরু হয়ে শেষ হবে তা ১৩ জুলাই।
স্বাগতিক ব্রাজিলসহ ৩২টি দেশের জাতীয় ফুটবল দল খেলবে এই আসরে। ব্রাজিল ব্যাতীত অন্যান্য দলগুলো দীর্ঘ এক বাছাই প্রক্রিয়া পেরিয়ে চূড়ান্তপর্বে এসেছে যে লড়াইয়ের শুরু হয়েছিল ২০১১ থেকে।
১৯৭৮-এর পর এই প্রথম আবারও দক্ষিণ আমেরিকায় বিশ্বকাপের আসর বসছে। ব্রাজিলে এরূপ আয়োজন এ নিয়ে দ্বিতীয়বার। অতীতে দক্ষিণ আমেরিকায় বসা বিশ্বকাপের সকল আসরে ঐ মহাদেশের দলগুলোই চ্যাম্পিয়ন হয়েছে।
ব্রাজিলের ১২টি শহরে ৬৪টি ম্যাচ হবে এবার। উদ্বোধনী আসর বসছে বিখ্যাত সাও পাওলো শহরে। আর ফাইনাল ম্যাচ হবে রিও ডি জেনিরোতে মারাকান স্টেডিয়ামে। ১৯৫০-এর বিশ্বকাপ উদ্বোধন হয়েছিল এখানেই। ব্রাজিলিয় উদ্দামতায় ভরা জমকালো উদ্বোধনী ও সমাপনী অনুষ্ঠান দেখার জন্য ইতোমধ্যে মুখিয়ে আছে বিশ্ববাসী।
চূড়ান্ত পর্যায়ে অংশ নেয়া ৩২টি দল ইতোমধ্যে ৮টি গ্রুপে বিভক্ত হয়ে শেষবারের মতো নিজেদের প্রস্তুতি ঝালাই করে নিচ্ছে যার যার বেসক্যাম্পে। গ্রুপ পর্যায়ে প্রত্যেক দল গ্রুপের সকল দলের সাথে একটি করে ম্যাচ খেলবে। এরপর গ্রুপে প্রথম ও দ্বিতীয় হওয়া দলগুলো নিয়ে শুরু হবে ১৬ দলের খেলা।
জয়ের জন্য তিন পয়েন্ট, ড্রয়ের জন্য এক পয়েন্ট এই হিসাবে এগোবে ফুটবল মর্যাদার এই বিশ্ব লড়াই।
এবারের টুর্নামেন্টে প্রাইজ মানি হিসেবে থাকছে প্রত্যেক দলের জন্য ন্যূনতম ৮ মিলিয়ন ডলার। এর বাইরে আয়ের সুযোগ আছে সকল দলের জন্য। যেমন, চ্যাম্পিয়ন দল পাবে ৩৫ মিলিয়ন ডলার, রানার-আপ পাবে ২৫ মিলিয়ন ডলার এবং কোয়ার্টার ফাইনালিস্টরা পাবে ১৪ মিলিয়ন ডলার করে। সব মিলে এবার
 ফিফার খরচ ৫৭৬ মিলিয়ন ডলার। গতবার এই অংক ছিল ৪২০ মিলিয়ন ডলার।

এসবই আয়োজক ব্রাজিলের খরচের অতিরিক্ত। অবকাঠামোগত নির্মাণ ব্যয়ের বাইরে কেবল নিরাপত্তার জন্যই ব্রাজিল ৯০০ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করছে।Fifa 1.jpg ম্যাচ দেখতে আসাদের প্রতি ৫০ জনের জন্য অন্তত একজন নজরদারি করার লোক থাকবে এবার। টুর্নামেন্টের স্বাগতিক দেশের দায়িত্ব পালন করতে যেয়ে ব্রাজিলকে বিভিন্ন খাতে প্রায় ১১ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করতে হয়েছে বলে জানা যায়।
পুরো টুর্নামেন্টে টিকিটের সংখ্যা ৩৩ লাখ ৩৪ হাজার ৫২৪টি। এর মধ্যে সাধারণ দশর্কদের জন্য থাকছে কেবল ১১ লাখ। যার মধ্যে আবার ব্রাজিলের নাগরিকদের জন্য চার লাখ সংরক্ষিত থাকবে। সাধারণের ১১ লাখের বাকি ৭ লাখ বিশ্বের অন্যান্য দেশের দশর্করা ক্রয় করতে পারবেন। বাকি টিকিট যাবে স্পন্সর, মিডিয়া, ভিআইপিদের কাছে।
১৯৬২ থেকে প্রতি বিশ্বকাপে একটা গান থাকছে ‘অফিসিয়াল সঙ’ নামে। এবারও তার ব্যতিক্রম হচ্ছে না। এবার টুর্নামেন্ট সঙ্গীত হলো ‘ওলে ওলা’ (আমরা সবাই এক)Ñ গাইবেন পিটবুল, জেনিফার লোপেয এবং ক্লদিয়া লেইথি। এর বাইরেও অফিসিয়াল স্পনসর সনি কোম্পানি বিশ্বকাপকে কেন্দ্র করে ‘সুপার সঙ’ নামে একটি প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছিল এবং সেই গানের জন্য নির্বাচিত হয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের এলিজা কিং আর গানটি গাইবেন রিকি মার্টিন।
গ্রুপ চিত্র
২০ তম বিশ্বকাপের ১নং গ্রুপে আছে ব্রাজিল, ক্রোয়েশিয়া, মেক্সিকো এবং ক্যামেরুন। ২ নং গ্রুপে থাকছে স্পেন, নেদারল্যান্ড, চিলি ও অস্ট্রেলিয়া। ৩ নং গ্রুপের সদস্য কলাম্বিয়া, গ্রীস, আইভরি কোস্ট ও জাপান। ৪ নং গ্রুপে খেলবে উরুগুয়ে, কোস্টারিকা, ইংল্যান্ড ও ইটালি। ৫ নং গ্রুপে সুইজারল্যান্ড, ইকুয়েডর, ফ্রান্স ও হন্ডুরাস। ৬ নং গ্রুপে আর্জেন্টিনা, বসনিয়া-হার্জেগোভিনা, ইরান ও নাইজেরিয়া। ৭ নং গ্রুপে জার্মানি, পর্তুগাল, ঘানা ও যুক্তরাষ্ট্র। ৮ নং গ্রুপে বেলজিয়াম, আলজেরিয়া, রাশিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়া।
প্রোব/আপা/পি/স্পোর্টস/০৭.০৫.২০১৪

৭ মে ২০১৪ | খেলা | ১২:৫১:২৮ | ১৬:১২:২৩