A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

যুক্তরাষ্ট্রে সিরিয় বিদ্রোহীদের কূটনৈতিক মিশন খোলার অনুমতি | Probe News

যুক্তরাষ্ট্রে সিরিয় বিদ্রোহীদের কূটনৈতিক মিশন খোলার অনুমতি


Syria Rebel 1111.jpgপ্রোবনিউজ, ডেস্ক: পশ্চিমাদের সমর্থিত সিরিয়ার বিদ্রোহীদের কূটনৈতিক মিশন খোলার অনুমতি দিয়েছে মার্কিন সরকার। সেইসঙ্গে বিদ্রোহী কমান্ডারদের দুই কোটি ৭০ লাখ ডলারের অতিরিক্ত অর্থসাহায্য দেয়ার ঘোষণাও দিয়েছে ওয়াশিংটন।

সিরিয়ার বিদ্রোহীদের কাউন্সিলের সভাপতি আহমাদ আল-জাবরার সঙ্গে মার্কিন কর্মকর্তাদের বৈঠকের আগে ওয়াশিংটন ডিসিতে মিশন খোলার এই অনুমতি দিল মার্কিন সরকার। আল-জাবরা এরইমধ্যে ওয়াশিংটনে পৌঁছেছেন এবং তিনি মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরিসহ অন্যান্য শীর্ষস্থানীয় কর্মকর্তাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

এর আগে বারাক ওবামার প্রশাসন ২০১২ সালের ডিসেম্বরে সিরিয়ার বিদ্রোহীদেরকে দেশটির ‘বৈধ প্রতিনিধি’ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছিল। তবে তখন তাদেরকে আনুষ্ঠানিক কূটনৈতিক মিশন খোলার অনুমতি দেয়া হয়নি। সিরিয়ার সেনাবাহিনী যখন বিদেশি মদদপুষ্ট সন্ত্রাসীদের কোণঠাসা করে ফেলেছে তখন বিদ্রোহীদের সঙ্গে সম্পর্ক আরো ঘনিষ্ঠ করল ওয়াশিংটন।

তবে মার্কিন কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সিরিয়ার বিদ্রোহীদেরকে কূটনৈতিক মিশন খোলার অনুমতি দেয়ার অর্থ তাদেরকে সিরিয়ার সরকার হিসেবে মেনে নেয়া নয়। এ ছাড়া, এ মিশনে কর্মরতদেরকে কূটনৈতিক দায়মুক্তিও দেয়া হবে না বলে জানান তারা। এ ছাড়া, ওয়াশিংটনস্থ সিরিয়ার পরিত্যক্ত দূতাবাসেও তাদেরকে ঢুকতে দেয়া হবে। গেলো মার্চ মাসে প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের নিযুক্ত কূটনৈতিক মিশন ওই দূতাবাস ত্যাগ করে দেশে ফিরে যায়।

সিরিয়ায় সহিংসতা শুরু হয় ২০১১ সালের মার্চ মাসে। জাতিসংঘের হিসাব মতে, এ সহিংসতায় এ পর্যন্ত অন্তত এক লাখ মানুষ নিহত ও লাখ লাখ মানুষ শরণার্থী হয়েছে। দামেস্ক বলছে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং তার আরব ও ইউরোপীয় মিত্ররা সিরিয়ায় তৎপর সন্ত্রাসীদের সব রকম পৃষ্ঠপোষকতা দিচ্ছে। যদিও বরাবরও এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে পশ্চিমারা।

প্রোব/বান/আন্তর্জাতিক ০৬.০৫.২০১৪

৬ মে ২০১৪ | আন্তর্জাতিক | ১২:৪৫:৪০ | ১৩:৪৯:৩৭

আন্তর্জাতিক

 >  Last ›