A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

জবিতে সাংবাদিকদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা | Probe News

জবিতে সাংবাদিকদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা


jobiপ্রোবনিউজ, ঢাকা: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় (জবি) শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি শরিফুল ইসলামের নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকদের ওপর দুই দফা হামলা চালিয়েছে। এতে আহত হয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা নিউজের প্রতিবেদক ইমরান আহমেদ, বাংলাদেশ প্রতিদিনের মাহবুব মন্তাজ ও সকালের খবরের তানভীর আহমেদ। লাঞ্ছিত হয়েছেন আরও ২০ জন সাংবাদিক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, সোমবার দুপুর আড়াইটার দিকে প্রথম দফায় প্রক্টর অফিস ও দ্বিতীয় দফায় বিকেল তিনটার দিকে উপাচার্যের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের ওপর হামলা চালানো হয়।

তারা জানান, প্রথম দফা হামলার পর উপাচার্য অধ্যাপক মিজানুর রহমানের কাছে নিরাপত্তা চেয়ে আবেদন করতে যান সাংবাদিকরা। এসময় উপাচার্যের সভাকক্ষেই দ্বিতীয় দফায় তাদের ওপর হামলা চালানো হয়। এসময় উপাচার্য পাশের কক্ষে ছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা আরও জানান, দুপুর দুইটার দিকে সমাজকর্ম বিভাগের শিক্ষার্থী রাসেলকে শিবির সন্দেহে আটক করে প্রক্টর অফিসে নিয়ে যায় ছাত্রলীগ। এ খবর সংগ্রহ করতে সাংবাদিকরা সেখানে যান। প্রক্টর অশোক কুমার সাহার উপস্থিতিতে রাসেল শিবিরের সঙ্গে জড়িত নন বলে দাবি করেন। এসময় বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মামুন ও সহ-সভাপতি কাউসার বাঁশ দিয়ে রাসেলকে মারধর করে।

সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও নয়া দিগন্তের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি এম সুজাউল ইসলাম এ ঘটনার প্রতিবাদ করে বলেন, "এটা টর্চার সেল নাকি।" তার এ কথায় ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা ক্ষিপ্ত হয়ে সাংবাদিকদের গালিগালাজ করতে থাকে।

এসময় বাংলাদেশ প্রতিদিনের বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক মাহবুব মন্তাজ সাংবাদিকদের পক্ষ নিয়ে কথা বললে তাকে ঘাড় ধাক্কা দিয়ে বের করে দিতে বলেন ছাত্রলীগ সভাপতি শরিফুল। তখন প্রক্টরের উপস্থিতিতেই বাংলা নিউজের প্রতিবেদক ইমরান আহমেদ, বাংলাদেশ প্রতিদিনের মাহবুব মন্তাজ ও সকালের খবরের তানভীর আহমেদকে মারধর করে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা।

ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষুব্ধ সাংবাদিকরা বিকেল তিনটার দিকে উপাচার্যের কাছে লিখিত অভিযোগ দিতে গেলে উপাচার্যের সভাকক্ষে ছাত্রলীগের সভাপতি শরিফুলের নেতৃত্বে দ্বিতীয় দফায় তাদের ওপর হামলা চালানো হয়। এসময় বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক সেলিম ভুঁইয়া সেখানে উপস্থিত ছিলেন বলে জানান সাংবাদিকরা।

এ প্রসঙ্গে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান বলেন, "ছাত্রলীগের এই ঘটনা অনাকাঙ্ক্ষিত। এ ঘটনায় মঙ্গলবার সকাল ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সাংবাদিকদের নিয়ে জরুরি বৈঠক ডাকা হয়েছে।"

তিনি জানান, এ বিষয়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি এইচএম বদিউজ্জামান সোহাগের সাথে তার কথা হয়েছে। প্রক্টর অশোক কুমার সাহা জানিয়েছেন, ঘটনা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।
বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক এম সুজাউল ইসলাম জানান, এ ঘটনায় একটি জিডি করা হবে।
প্রোব/খোআ/জাতীয় ০৫.০৫.২০১৪

৫ মে ২০১৪ | জাতীয় | ১৮:২৩:০৮ | ১৪:৪৯:২২

জাতীয়

 >  Last ›