A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

সৌদি বাদশার বিরুদ্ধে বিদ্রোহের ডাক বন্দী মেয়ে সাহারের | Probe News

Saudi Princess- Sahar1.jpgরাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে রাজকন্যা
সৌদি বাদশার বিরুদ্ধে বিদ্রোহের ডাক বন্দী মেয়ে সাহারের

প্রোবনিউজ, ডেস্ক: রাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ জারি করেছেন রাজকন্যা স্বয়ং। ঘটনাটা সৌদি আরবের। সেদেশে রাজতন্ত্রের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করতে, জনতার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বাদশাহ আবদুল্লাহর গৃহবন্দি বড় মেয়ে সাহার। তার একটি ভিডিওবার্তা নিয়ে এই খবর প্রকাশ করেছে লেবাননের টেলিভিশন আল মানার।

১৩ বছর ধরে গৃহবন্দি রয়েছেন সাহার-সহ চার সৌদি রাজকন্যা। ঘর থেকে বের হতে পারেননি এক মুহূর্তের জন্যও। তাদের অপরাধ, বাবার কাছে দরিদ্র ব্যক্তিদের অবস্থার উন্নয়নের দাবি জানিয়েছিলেন তারা। রাজতন্ত্রের সৌদি বাস্তবতায় বাদশা বাবার কাছে তারা বিবেচিত হয়েছেন অপরাধী হিসেবে।

মানার টেলিভিশনকে দেয়া সাক্ষাৎকারে ৪২ বছর বয়সী সাহার বলেন, “ রাজতন্ত্রের বিরোধিতা করতে গিয়ে যারা শহীদ হয়েছেন এবং কারাগার থেকে মুক্ত হয়েছেন, তাদের অভিনন্দন।” সাহার জানান, স্বাধীনতার প্রকৃত অর্থ বুঝতে পেরে,Saudi Princess- Sahar2.jpg বিপ্লবী মানুষদের মর্যাদা এবং অধিকার সম্পর্কে সচেতন হতে পেরে তিনি সত্যিই অনেক ভাগ্যবান।

গেলো মার্চে উপসাগরীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা, সিরিয়া, ইরান ও মধ্যপ্রাচ্য পরিস্থিতি এবং মিশরের রাজনৈতিক অবস্থা নিয়ে আলোচনা করতে সৌদি আরব সফর করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। আর ওই সফরকে মাথায় রেখেই চার রাজকন্যাকে গৃহবন্দি অবস্থা থেকে মুক্ত করতে মার্কিন প্রেসিডেন্টের সহায়তা চান তাদের মা বা রাজার সাবেক স্ত্রী ফায়েজ। তারওআগে একবার আবদুল্লাহর স্ত্রী আনুদ আলফায়েজ তার চার মেয়েকে বন্দিদশা থেকে মুক্ত করার জন্য জাতিসংঘ মানবাধিকার কমিশনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছিলেন।

শনিবার আল মানারের সঙ্গের ভিডিও সাক্ষাৎকারে সাহার রাজতন্ত্রবিরোধীদের উদ্দেশ্য করে বলেন, “আমরা তোমাদের পথ অনুসরণের প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি, তোমাদের প্রচেষ্টা কখনো বৃথা যেতে দেব না। আল্লাহর সাহায্য আমাদের সঙ্গেই থাকবে।” তিনি বলেন, “মুক্তিকামী মানুষের নেতা আয়াতুল্লা নিমার আল নিমারের কাছ থেকে আমরা দৃঢ়তা শিখেছি। রাজবন্দিদের মুক্তি দেয়ার দাবি জানানোর কারণে কাতিফ প্রদেশের জান্তাবাহিনী তাকে মেরেছে, আহত করেছে এবং জেলে ভরেছে।”

সাহার আশা প্রকাশ করেন, “আল্লাহ্র ওপর বিশ্বাস রেখে অদূর ভবিষ্যতে আমরাই বিজয়ী হব। যারা স্বাধীনতার পতাকা উড়িয়ে আমাকে, আমার বোনদেরকে সম্মানিত করেছে আল্লাহ আমাদের সহায় হোন।”

এরআগে গেলো মার্চে চার রাজকন্যার দু'জন সাহার এবং জাওয়াহের-এর সঙ্গে আলাপ করে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে সংবাদমাধ্যম চ্যালেন ফোর নিউজ। সেসময় ওই দুই রাজকন্যা জানান, তাদের মতো করেই তাদের আর দুই বোন Saudi Princess- Sahar4.jpgমাহা এবং হালা অন্য একটি প্রাসাদে বন্দি রয়েছেন। তাদের বিরুদ্ধে শারীরিক এবং মানসিক নিপীড়নেরও অভিযোগ আনেন তারা। চ্যানেল ফোর নিউজকে তারা বলেন, "আমরা বাদশার মেয়ে হবার পরও যদি এমন অবস্থা হয়, তাহলে সাধারণ মানুষের কী অবস্থা বুঝুন"।

আবদুল্লাহর স্ত্রী ৫৭ বছর বয়স্ক আনুদ আলফায়েজ ২০০৩ সালে স্বামীর কাছ থেকে বিবাহ-বিচ্ছেদের পর থেকে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাস করছেন। তিনি জানিয়েছেন, রাজা আবদুল্লাহ সাম্প্রতিক সময়ে তার এই চার কন্যা তথা সাহার, মাহা, হালা ও জাওয়াহের-এর সঙ্গে আগের চেয়েও খারাপ আচরণ করছেন। এই চার রাজকন্যার গড় বয়স প্রায় ৪০।

তবে আনুদ তাঁর নিজের মেয়েদের মুক্তির জন্য মার্কিন প্রেসিডেন্ট-এর হস্তক্ষেপ কামনা করলেও এ ব্যাপারে হোয়াইট হাউস কোনো প্রতিক্রিয়া জানায়নি এখনও পর্যন্ত।
প্রোব/বান/আন্তর্জাতিক ২৮.০৪.২০১৪

 

২৮ এপ্রিল ২০১৪ | আন্তর্জাতিক | ১১:২৩:১২ | ১৫:০২:০৪

আন্তর্জাতিক

 >  Last ›