A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

চিরবিদায় নিলেন বার্সেলোনার ভিলানোভা | Probe News

Tito-Vilanova1.jpgপ্রোবনিউজ,ডেস্ক: স্প্যানিশ লিগের ক্লাব বার্সেলোনার সাবেক কোচ টিটো ভিলানোভা মারা গেছেন। মাত্র ৪৫ বছর বয়সে ফুটবল ভক্তদের শোকে ভাসিয়ে দিয়ে চিরবিদায় নিয়েছেন এই সাবেক কোচ। দীর্ঘদিন ধরে ক্যান্সারে ভুগছিলেন তিনি। শুক্রবার বার্সেলোনার এক বিবৃতিতে টিটোর মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করেছে।
বার্সেলোনার ওয়েবসাইটে দেখা গেছে, শুক্রবার রাতটি বার্সেলোনার জন্য একটা অনেক বড় শোকের; টিটো ভিলানোভা ৪৫ বছর বয়সে মারা গেছেন। টিটো যেন শান্তিতে বিশ্রাম নিতে পারেন এমন কথাও লিখা রয়েছে ক্লাবের ফ্যান পেইজে।
ক্যান্সার কোনভাবেই টিটোকে ছাড়ছিল না। ২০১১ সালের নভেম্বরে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে প্রথম তার গলা থেকে একটা টিউমার সরানো হয়েছিল। কিন্তু পরের বছর ডিসেম্বরে আবার তা খারাপ পর্যায়ে চলে যায়। ২০০৭ সাল থেকে স্পেনের জনপ্রিয় ক্লাবটির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন দেশটির সাবেক মিডফিল্ডার ভিলানোভা। ২০০৭-০৮ মৌসুম আবারো বার্সেলোনা 'বি' দলের সহাকারী কোচের দায়িত্ব পালন করেন তিনি। আর পরের বছর মূল দলের প্রধান কোচ পেপ গার্দিওলার সহকারী হিসেবে কাজ শুরু করেন ভিলানোভা।
এরপর ২০১২ সালে গার্দিওলা বার্সা ছাড়ার পর দুই বছরের চুক্তিতে প্রধান কোচের দায়িত্ব পান তিনি। প্রথম বছরেই দলকে লা লিগা শিরোপা জেতান ভিলানোভা। কিন্তু ক্যান্সারের চিকিৎসার জন্য গত জুলাইয়ে দায়িত্ব থেকে সরে যান তিনি।
টিটো ভিলানোভার অকাল মৃত্যুতে বার্সেলোনার স্ট্রাইকার অ্যালাক্সিস সানজেস বলেছেন, ‘আমার ক্যারিয়ারে টিটোর ভূমিকা অনেক বেশি। গত মৌসুমে আমি খুব বাজে খেলছিলাম। কিন্তু তার উৎসাহ আর অসাধারণ অনুশীলন আমাকে ফিটনেসে ফিরিয়ে এনেছে।’ গত বছর বার্সেলোনা ত্যাগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন সানচেজ। কিন্তু শেষ পযর্ন্ত বার্সেলোনায় টিকে গেলেন ২৪ বছর বয়সী দুর্দান্ত এই খেলোয়াড়।
কার্লোস পুয়েল টিটো ভিলানোভার মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছেন। শুক্রবার এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি টিটোর স্মৃতিচারণ করে বলেছেন, ‘টিটো বার্সেলোনাকে অসাধারণ একটি মৌসুম উপহার দিয়েছে। আমি সারা মৌসুম ইনজুরিতে থাকলেও বছরটি দুর্দান্ত অতিক্রম করেছিলাম। টিটো বার্সায় বেশি দিন না থাকতে পারলেও সকলকে আন্তরিকতায় ভাসিয়ে গেছেন। সবাই তাকে খুব ভালোবাসে।’ ২০১২-১৩ মৌসুম পুয়েল ইনজুরি আক্রান্ত ছিলেন। টিটোর উৎসাহে মাঠে ফেরা পুয়েলের। দলে আসার পর বেশকিছু দিন দুর্দান্ত খেলেছিলেন।
এক নজরে টিটো ভিলানোভার বার্সালোনা ক্যারিয়ার
২. ১৯৮৮ থেকে ১৯৯০ মৌসুমে বার্সেলোনার বি দলের সঙ্গে দুই বছরের জন্য কোচের দায়িত্ব পালন করেছেন টিটো ভিলানোভা।
১৪. পেপ গার্দিওলার সহকারী কোচ থাকা অবস্থায় ২০০৮-২০১২ মৌসুমে ১৯ ট্রফির মধ্যে ১৪ ট্রফি ঘরে তুলেছেন টিটোর বার্সেলোনা।
৬০. ২০১২-১৩ মৌসুমে তার কোচিংয়ে বার্সেলোনা ৬০ ম্যাচ খেলেছে। যার মধ্যে জয় ৪৩টি, ড্র ৯টি ও পরাজয় মাত্র ৮টি।
১০০. টিটো ক্লাব ফুটবলের একমাত্র কোচ যিনি বার্সেলোনাকে ১০০ পয়েন্ট অর্জন করিয়ে লা লিগার শিরোপা মর্যাদায় ভাসিয়েছেন।
১৫৮. টিটোর ২০১২-১৩ মৌসুমে বার্সেলোনা করেছে ১৫৮ টি গোল। যার মধ্যে আর্জেন্টাইন তারকা লিওলেন মেসি ৭৩ গোলের রেকর্ড করেছেন। যা মেসিকে টানা চতুর্থবারের মতো ব্যালন ডি’অর এনে দিয়েছে।
প্রোব/এহ/খেলা ২৬.০৪.২০১৪

২৬ এপ্রিল ২০১৪ | খেলা | ১৪:৩৫:২৮ | ১৪:১৪:০৪