A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

অবৈধ স্থাপনা অপসারণ ও মামলা প্রত্যাহারের দাবি পরিবেশবাদীদের | Probe News

DHANMONDIad.jpgপ্রোবনিউজ, ঢাকা : অবৈধ দখলদার শেখ জামাল ক্লাবের কর্তৃপক্ষের দায়ের করা ধানমন্ডি মাঠ রক্ষা আন্দোলনের চার নেতার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার ও ধানমন্ডি মাঠের ভেতর অবৈধ স্থাপনা অপসারণ ও নির্মাণ কাজ বন্ধের দাবি জানিয়েছে পরিবেশবাদী বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা। শেখ জামাল ক্লাবের পরিচালকের অপসারণ দাবি ও সিটি কর্পোরেশনকে অযোগ্য প্রতিষ্ঠান বলেও মন্তব্য করেছেন বক্তারা।
শুক্রবার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা অনুষদের সামনে এক ‘নাগরিক সমাবেশ’ আয়োজন করেছে নাগরিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পরিবেশবাদী বিভিন্ন সংগঠন।
সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাপার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক স্থপতি ইকবাল হাবিব, স্থপতি সালমা শফি, জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক গাজী আশরাফ হোসেন লিপু, ধানমন্ডি মাঠ রক্ষা আন্দোলনের নেতা ডা. মাহবুব রহমান ও ফারজানা রহমান, বাপার সহ-সম্পাদক শরিফ জামান ও পরিবেশবাদী বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা। সমাবেশটি সঞ্চালনা করেছেন গ্রীন ভয়েজের সভাপতি আলমগীর কবির।
সমাবেশে বক্তাদের দাবি করেন, ধানমন্ডি মাঠ রক্ষা আন্দোলনের চার নেতাসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে শেখ জামাল ক্লাব কর্তৃপক্ষের দায়ের করা মামলা অবিলম্বে বাতিল, মাঠের অবৈধ স্থাপনার নির্মাণ কাজ বন্ধ, মাঠের অভ্যন্তরের নতুন-পুরাতন সকল স্থাপনার অপসারণ এবং মাঠে সকল মানুষের প্রবেশাধিকার অব্যাহত রাখতে হবে এবং এলাকাবাসীকে নিয়ে মাঠ ব্যবস্থাপনা কমিটি গঠন করতে হবে।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে বাপার যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হাবিব বলেছেন, ‘মিডিয়ায় প্রকাশ পেয়েছে প্রধানমন্ত্রীর নিদের্শনায় ধানমন্ডি খেলার মাঠ উন্মুক্ত হয়েছে। স্পষ্ট বলে দিতে চাই প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা নয় বরং এলাকাবাসী ও পরিবেশবাদীদের আন্দোলনের মুখে সিটি কর্পোরেশন ধানমন্ডি খেলার মাঠ খুলে দিতে বাধ্য হয়েছে।’
তিনি আরো বলেন, ‘আগামী রোববার আদালতের পুনরায় রায় আসবে। তারপর জনগণকে নিয়ে আন্দোলনের মাধ্যমে মাঠের ভেতর অবৈধ স্থাপনা অপসারণ করতে পারবো।’ শেখ জামাল ক্লাবের পরিচালক মঞ্জুর কাদেরের অপসারণের দাবি জানিয়ে বলেছেন, ‘মাঠকে ব্যবহার করছে কিছু মুনাফালোভী ব্যক্তি। তাদের অচিরেই মাঠের দায়িত্ব ছাড়তে হবে।’
ধানমন্ডি খেলার মাঠ রক্ষা কমিটির আহবায়ক ও জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক গাজী আশরাফ হোসেন লিপু বলেন, ‘আন্দোলনের প্রাথমিক সফলতা পেয়েছি। সিটি কর্পোরেশনের শুভ বুদ্ধির উদয় হয়েছে। এজন্য তাদেরকে ধন্যবাদ দিতে চাই। সেই সঙ্গে আদালতের রায় বাস্তবায়ন করে মাঠের ভেতর অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে দেয়ার ব্যবস্থা করুন।’
স্থপতি সালমা শফি বলেছেন, ‘নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগের মামলা দাতিল করে মাঠের ভেতর সকল স্থাপনার নির্মাণ কাজ বন্ধ করুন। ধানমন্ডি মাঠ রক্ষা না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবো।’
সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে বাপার সাধারণ সম্পাদক ডা. আব্দুল মতিন বলেন, ‘শেখ জামাল ক্লাবের গেটে এতদিন ডিসিসি’র একটি ভুয়া সাইনবোর্ড ছিল। সেখানে সিটি কর্পোরেশন দেখেও না দেখার ভান করেছে। সিটি কর্পোরেশন একটি ব্যর্থ প্রতিষ্ঠান। বৃহস্পতিবার তাদের শুভবুদ্ধি হয়েছে। তাই মাঠের গেটে তাদের অনুমোদনের নোটিশ টানিয়ে দিয়েছে। যাহোক, ধানমন্ডির সর্বসাধারণের জন্য যদি মাঠের ভেতর অবৈধ স্থাপনা অপসারণ করতে না পারে তাহলে তাদের ব্যর্থতার মুখোশ আরো খুলে যাবে।’ ক্লাব কর্তৃপক্ষের দায়ের করা মিথ্যা অভিযোগের মামলা প্রত্যাহার করে মাঠের অবৈধ স্থাপনা অপসারণের দাবি জানান।
তিনি আরো বলেন, ‘যতদিন ধানমন্ডি মাঠ রক্ষা করতে না পারবো, সর্বসাধারণকে সঙ্গে নিয়ে আন্দোলন চালিয়ে যাবো।’
সমাবেশে অংশ নিয়েছেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা), বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউট (আইএবি), বাংলাদেশ পরিবেশ আইনজীবী সমিতি (বেলা), বাংলাদেশ এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ার্স এসোসিয়েশন, গ্রীণ ভয়েস, সবুজপাতা, নিরাপদ ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন, ডব্লিউ বি বি ট্রাস্ট, ঢাকা যুব ফাউন্ডেশন, পুরান ঢাকা পরিবেশ উন্নয়ন ফোরাম, আদি ঢাকাবাসী ফোরাম, সেডাস, সেবা, পিস, উন্নয়নধারা ট্রাস্ট, পরিবর্তন চাই, আইন ও শালিস কেন্দ্র, সেন্টার ফর আরবান স্টাডিজ (সি ইউ এস), নিজেরা করি, নাগরিক উদ্যোগ, সুন্দর জীবন, বিআইপি, সুজনসহ ৫০টি সংগঠন।
প্রোব/এহ/পি/জাতীয় ২৫.০৪.২০১৪

২৫ এপ্রিল ২০১৪ | জাতীয় | ১৩:১২:০৪ | ১৪:৩৬:০৪

জাতীয়

 >  Last ›