A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

রেলওয়ের জমি নিয়ে হেফাজতের ব্যাখ্যা | Probe News

প্রোবনিউজ, ঢাকা: হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের আমির আল্লামা শাহ আহমদ শফী ও রেলওয়ে থেকে পাওয়া জমির ব্যাখ্যা দিয়েছে সংগঠনটি।
গণমাধ্যমে হেফাজত ইসলামের প্রচার বিভাগের মাওলানা আবু রায়হানের পাঠানো এক বিবৃতিতে এ ব্যাখ্যা দেয়া হয়।
ওই বিবৃতিতে তারা দাবি করেছে, রেলওয়ের জমিসংক্রান্ত বিষয়গুলো হেফাজতে ইসলাম গঠিত হওয়ার অনেক আগের বিষয়। ওই জমির সঙ্গে আহমদ শফী কিংবা হেফাজতে ইসলামের কোনো সম্পর্ক নেই।

বিবৃতিতে বলা হয়, “দারুল উলুম হাটহাজারী মাদরাসার পক্ষ থেকে রেলওয়ের জমি লিজ নেয়ার জন্য আইনসিদ্ধভাবে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের কাছে আবেদন করা হয়েছিল। আইনসম্মতভাবেই রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ জমিগুলো মাদরাসাকে বরাদ্দ দিয়েছে। মাদরাসা কর্তৃপক্ষ জমি দখলে পাওয়ার পর মাদরাসার নামে সাইনবোর্ড ও খুঁটি দিয়ে সীমানা নির্ধারণ করেছে।” এই জমি পুরোপুরিভাবে হাটহাজারী মাদরাসার কাজে ব্যবহৃত হবে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।

“আহমদ শফী ও তার পরিবার কিংবা হেফাজতে ইসলামের কোনো সম্পর্ক নেই এই জমির সঙ্গে। রেলওয়ের জমিসংক্রান্ত বিষয়গুলো হেফাজতে ইসলাম গঠিত হওয়ার অনেক আগের বিষয়। জমির লিজসংক্রান্ত বিষয়ে সরকারের সঙ্গে হেফাজতের কথিত সমঝোতার প্রচারণা ষড়যন্ত্রের অংশ।”

আল্লামা আহমদ শফীকে একজন পরিচ্ছন্ন ব্যক্তি হিসেবে উল্লেখ করে হেফাজতের নেতারা বলেন, “তার মতো একজন মহান ব্যক্তি সম্পর্কে জনমনে নেতিবাচক ধারণা সৃষ্টি করার দুরভিসন্ধিতে কিছু মিডিয়া সরকার ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের অর্থনৈতিক সুবিধা নেয়ার জন্য যে জঘন্য মিথ্যাচার করছে, তার নিন্দা জানানোর ভাষা আমরা খুঁজে পাচ্ছি না।”

সরকারের সঙ্গে সমঝোতা প্রসঙ্গে বিবৃতিতে বলা হয়, “বিভিন্ন সময় ১৩ দফা দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাসের পরিপ্রেক্ষিতে সরকারের বিভিন্ন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা শাহ আহমদ শফীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। তার অর্থ সরকারের সঙ্গে আঁতাত বা কোনো আর্থিক সুযোগ-সুবিধা গ্রহণ করা নয়।” যারা মিথ্যা ও উদ্দেশ্যমূলক প্রপাগান্ডা চালাচ্ছে, তাদের কাছ থেকে সতর্ক থাকার জন্য ওলামা-মাশায়েখ ও তৌহিদি জনতার প্রতি আহ্বান জানান হেফাজতের নেতারা।

হেফাজতের নেতারা বলেন, “ আমরা সাম্প্রতিক সময়ে লক্ষ্ করছি, কতিপয় ইলেক্ট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়া, কিছু নাস্তিক্যবাদী বুদ্ধিজীবী, জনবিচ্ছিন্ন রাজনীতিক মিথ্যাচার ও তথ্যসন্ত্রাস চালিয়ে আল্লামা আহমদ শফী ও হেফাজতে ইসলামকে কলঙ্কিত করার সুদূরপ্রসারী ষড়যন্ত্রে মেতে উঠেছেন।” তারা এ বিষয়ে হুঁশিয়ারি করে বলেন, “এ দেশের তৌহিদি জনতা ঘুমিয়ে যায়নি। আহমদ শফী ডাক দিলে নবীপ্রেমিক জনতা ইসলামবিদ্বেষী নাস্তিক্যবাদী শক্তির বিরুদ্ধে আবার মাঠে নামতে প্রস্তুত রয়েছে। ইসলামের বিরুদ্ধে যেকোনো অপশক্তির মোকাবেলায় আমরা জীবন বাজি রেখে লড়াই চালিয়ে যাব।”

বিবৃতিদাতারা হলেন হেফাজতের সিনিয়র নায়েবে আমির মাওলানা শাহ মুহিব্বুল্লাহ বাবুনগরী, নায়েবে আমির মাওলানা হাফেজ শামসুল আলম, মাওলানা নূর হোসেন কাছেমী, মাওলানা শাহ আহমদুল্লাহ আশরাফ, মাওলানা আবদুল মালেক হালিম, মাওলানা আবদুল হামিদ পীরসাহেব মধুপুর, কেন্দ্রীয় মহাসচিব মাওলানা হাফেজ জুনাইদ বাবুনগরী, মাওলানা সালাউদ্দিন নানুপুরী, মাওলানা সাজেদুর রহমান, মাওলানা সলিমুল্লাহ, মাওলানা জাফরুল্লাহ খান, মাওলানা জুনাইদ আল হাবিব, মাওলানা লোকমান হাকিম, কওমী মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড বেফাক মহাসচিব মাওলানা আবদুল জব্বার, মাওলানা মুফতি জসিম উদ্দীন, মাওলানা ফোরকান আহমদ, মাওলানা আবদুল বাসেত বরকতপুরী, সিলেট; মাওলানা ওবায়দুর রহমান মাহবুব, বরিশাল; মাওলানা মোশতাক আহমদ, খুলনা; মাওলানা জামাল উদ্দিন, রাজশাহী প্রমুখ।
প্রোব/খোআ/জাতীয়/ ২১.০৪.২০১৪

 

২১ এপ্রিল ২০১৪ | জাতীয় | ১০:৫৮:৫৮ | ১৭:১৮:২০

জাতীয়

 >  Last ›