A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

ঠান্ডা-কাশি থেকে বাঁচার উপায় | Probe News

Cold cough.jpgপ্রোবনিউজ, ডেস্ক: গ্রীষ্মের প্রখর তাপে ছোট বড় সবার জীবন অতিষ্ঠ। গরমে ঘেমে শরীর ভিজে গেলে ঠান্ডা লাগে আর এর ফলে কাশির সংক্রমণ বাড়ে। ভাইরাসজনিত কারণে এসব অসুখ হয়ে থাকে। তবে খুব সহজেই বাড়িতে কিছু উপায় অবলম্বনে এই ঠান্ডা বা কাশি থেকে আমরা পরিত্রান পেতে পারি।

১.বাষ্প¯œান: বাসার ছোট্ট সোনামণিটার ঠান্ডা লাগলে তাকে হালকা গরম পানিতে ১০-১৫ মিনিট শ্বাস নেয়াতে হবে। ইউক্যালিপ্টাস তেল ব্যবহারেও শিশুর উপকার হয়।

২. মধু: ঠান্ডায় মধু হচ্ছে সবচেয়ে উপকারী। হাতের আঙ্গুলে করে মধু নিয়ে শিশুকে খাওয়াতে হবে দিনে দুই থেকে তিনবার। শিশুর বয়স যদি ৫ বছরের বেশি হয় তাহলে এক চামচ মধুর সঙ্গে দারুচিনির গুড়া মিশিয়ে খাওয়ানো যেতে পারে।

৩.মালিশ: মালিশ শিশুর জন্য সবচেয়ে উপকারী। যেসব শিশুর বয়স দুই বছরের কম তাদের ক্ষেত্রে মালিশটা বেশি কাজে দেবে। সরিষার তেলের সঙ্গে রসুন মিশিয়ে শিশুর বুকে, পিঠে, ঘাড়ে মালিশ করতে হবে। এতে করে শিশু ঠান্ডা থেকে খুব দ্রূত মুক্তি পাবে।


৪.জলযোজন: হাচিঁ কাশি ভাইরাস জনিত রোগ। এসময় শিশুকে খুব সাবধানে রাখতে হবে। বিশুদ্ধ পানি পান করাতে হবে নির্দিষ্ট সময় পর পর। গরম স্যুপ,ফলের রস,ও অন্যান্য তরল জাতীয় খাবার দেয়া দরকার।

৫.হলুদ দুধ: এক গ্লাস গরম দুধের মধ্যে অল্প পরিমাণ হলুদ মিশিয়ে শিশুকে প্রতিরাতে খাওয়াতে হবে। ঠান্ডা ও কাশিতে এন্টিসেপটিক হিসেবে কাজ করবে এটি।

৬.তুলসী: তুলসীপাতা ঠান্ডা ও কফের জন্য খুব উপকারী।

৭.গার্গিল: গরম পানিতে লবণ মিশিয়ে গার্গিল করলে ঠান্ডা ও কাশি থেকে দ্রুত উপসম পাওয়া যাবে।

প্রোব/শামা/লাইফস্টাইল ১৯.০৪.২০১৪

১৯ এপ্রিল ২০১৪ | লাইফস্টাইল | ১৮:২৬:০৪ | ১৪:৩৯:৩৭