A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

ছিটমহল নিয়ে মমতার নরম সুর! | Probe News

Chitmohol.jpgপ্রোব নিউজ, ডেস্ক: বাংলাদেশের সঙ্গে ছিটমহল বিনিময় নিয়ে অনড় অবস্থান থেকে সরে এসেছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। আর এমন তথ্যই উঠে এসেছে ভারতীয় দৈনিক আনন্দ বাজারের প্রতিবেদনে।
এতে বলা হয়, জনসভা থেকে শুরু করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম সব জায়গাতেই এতদিন ছিটমহল বিনিময় নিয়ে মমতা ঘোর আপত্তি জানিয়ে আসলেও নির্বাচনকে সামনে রেখে ভোল পাল্টেছেন তিনি। প্রতিবেদনে বলা হয়, আগের অবস্থান থেকে একেবারে সরে এসে মমতা এখন বলছেন “ওখানকার মানুষ যা চান, তাই-ই হবে। আমি জোর করে কিছু চাপিয়ে দিই না। ওখানকার মানুষের যে ভাবে সুবিধে হবে, আলোচনার মাধ্যমে তা-ই করা হবে।”
এদিকে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের অবস্থান পরিবর্তনের কঠোর সমালোচনা করেছে ‘ভারত-বাংলাদেশ ছিটমহল বিনিময় সমন্বয় কমিটি’।
কমিটির সাধারণ সম্পাদক দীপ্তিমান সেনগুপ্ত বলেন, “তৃণমূল নেত্রীর কথা শুনে অবাক হয়ে গিয়েছি। ভোটের আগে এমন ডিগবাজি!” তাঁর দাবি, ছিটমহলবাসীদের কয়েক হাজার আত্মীয়ের ভোট পেতেই মমতার এই ভোল বদল।
ভারতে সরকারি ভাবে ছিটের বাসিন্দাদের ভোটাধিকার নেই। তবে মশালডাঙা, পোয়াতুর, জবরার মতো অজস্র ছিটমহলের বাসিন্দারা আশপাশের গ্রামের মানুষের সঙ্গে বাঁধা পড়েছেন Chitmohol 2.jpgআত্মীয়তার বন্ধনে। আর সেই সুবাদে তাঁদের অনেকেরই এখন ভোটাধিকার রয়েছে। সরকারি সূত্রের বরাত দিয়ে আনন্দবাজার জানায়, ছিটের পনেরো হাজার মানুষ এখন ভোটাধিকার পেয়েছেন।
আর বিরোধীদের দাবি, সেই ভোটের দিকে তাকিয়েই তৃণমূল নেত্রীর এই মত ‘পরিবর্তন’।
ভারত-বাংলাদেশ মিলিয়ে ছিটমহলের সংখ্যা ১৬২টি। এর মধ্যে ১১১টি ভারতীয় ছিটমহল, যেগুলি রয়েছে বাংলাদেশে। আর ৫১টি বাংলাদেশি ছিটমহল রয়েছে ভারতে। যার অধিকাংশই সীমান্ত জেলা কোচবিহার, বিশেষত দিনহাটা মহকুমায়। বাংলাদেশি ছিটমহলগুলি ৭১১০ একর জমিতে ১৪ হাজার ২১৫ জনের বাস। ভারতীয় ছিটমহলে ১৭,১৫৮ একর জমিতে ৩৭ হাজার ৩৬৯ জনের বসতি।
প্রোব/ফাউ/ডেস্ক/১৩.০৪.২০১৪

১৩ এপ্রিল ২০১৪ | দক্ষিণ এশিয়া | ১৭:২১:৩৬ | ১১:৫৩:৫৮

দক্ষিণ এশিয়া

 >  Last ›