A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

জুনের মধ্য মধ্যপ্রাচ্য মিশনে যাচ্ছেন ‘বিশেষ দূত’ এরশাদ | Probe News

Ershad 11.jpgবেলায়েত হোসাইন, প্রোবনিউজ: প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হিসেবে দায়িত্ব পাওয়ার তিনমাস অতিবাহিত হলেও এখন পর্যন্ত দৃশ্যমান কোনো কর্মকা- চোখে পড়েনি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের। তবে মে কিংবা জুনে তাঁর মধ্যপ্রাচ্য সফরের সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানা গেছে।
বিশেষ দূতের দায়িত্ব পাওয়ার পর গত ২৩শে জানুয়ারি এক বিবৃতিতে এরশাদ বলেছিলেন, প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত হিসেবে তাঁর প্রথম এবং প্রধান কাজ হবে একটি আধুনিক মুসলিম প্রধান গণতান্ত্রিক দেশ হিসেবে বাংলাদেশের সুমহান ভাবমূর্তি বিশ্ব দরবারে পৌঁছে দেওয়া ও মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক জোরদার করে হারিয়ে যাওয়া জনশক্তির বাজার ফিরে আনা। তিনি এও বলেছিলেন, ‘বাংলাদেশের ভাবমূর্তি তুলে ধরে বিদেশি বিনিয়োগকারীদের আস্থা ফিরিয়ে এফডিআই বৃদ্ধি করবো।’ মধ্যপ্রাচ্যের জন্য বিশেষ ইপিজেড প্রতিষ্ঠার ব্যাপারেও আশ্বাস দিয়েছিলেন তিনি। তবে এরইমধ্যে ৩ মাস পেরোলেও নিয়মিত অফিস করা ছাড়া এইসব ব্যাপারে আর কোন অগ্রগতির কথা জানা যায়নি।
earshad 12জাপা সূত্রে জানা গেছে, মঞ্জুর হত্যা মামলার বিচার, দলীয় বিশৃঙ্খলাসহ ব্যক্তিগত কিছু ঝামেলার কারণেই বিশেষ দূতের দায়িত্ব এখনও পর্যন্ত সঠিকভাবে শুরু করতে পারেননি তিনি। তবে এরই মধ্যে গত ১২ই মার্চ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে বিশেষ দূতের দায়িত্ব সম্পর্কে অবগত হয়ে আসেন তিনি। ওই দিন থেকেই জাতীয় সংসদ ভবনে শুরু করেন অফিস।
তবে আগামী দু’এক মাসের মধ্যে তিনি বিদেশি বিনিয়োগ ও জনশক্তি রপ্তানির বিষয়টি মাথায় রেখে মধ্যপ্রাচ্যে সফর করবেন বলে জানা গেছে। এরই মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রসহ ছয়টি দেশের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে বৈঠক করেছেন তিনি। গত ৬ এপ্রিল বনানীর দলীয় কার্যালয়ে বাংলাদেশে নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূত ড. আব্দুল্লাহ বিন নাসের আল-বুশারীর সঙ্গে বৈঠক করেন এরশাদ। এর আগে ৬ মার্চ বারিধারাস্থ নিজ বাসভবন প্রেসিডেন্ট পার্কে কুয়েত, কাতার, আরব আমিরাত ও সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূতদের সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি।
এরশাদের ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা গেছে, বিদেশ সফরের জন্য প্রায় সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছেন সাবেক রাষ্ট্রপতি। শুধু দলীয় ঝামেলার কারণেই সফরের অগ্রগতি হচ্ছে না। এপ্রিলে দলের বেশ কিছু কর্মসূচি রয়েছে। এছাড়া জাতীয় পার্টির কাউন্সিলও সামনে। জানা গেছে, এসব বিষয় নিয়ে সম্প্রতি পার্টির মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদারের সঙ্গে একান্তে বৈঠক করেছেন এরশাদ। মহাসিচবকে তার সফরের বিষয়টি মাথায় রেখে দলীয় কর্মসূচি ও কাউন্সিলের দিন তারিখ নির্ধারণ করতে বলেন তিনি। ধারণা করা হচ্ছে মে-জুনেই মধ্যপ্রাচ্য সফর করবেন তিনি।
এই সফরের এজেন্ডা বিষয়ে এরশাদের বিশেষ উপদেষ্টা ও মুখপাত্র ববি হাজ্জাজ প্রোবনিউজকে বলেন, বিদেশী বিনিয়োগ ও জনশক্তি রপ্তানির লক্ষ্য নিয়ে এরশাদ প্রথমে মধ্যপ্রাচ্যে যাবেন।
প্রসঙ্গত, বিশেষ দূত হিসেবে এখন পর্যন্ত কোন অর্জন দেখাতে না পারলেও এরশাদ সরকারিভাবে নানান সুবিধা পেতে শুরু করেছেন। এর মধ্যে রয়েছে প্রতিমাসে বেতন-ভাতা হিসাবে ৫৩ হাজার ১০০ টাকা। ব্যক্তিগত সহকারি হিসাবে একজন উপসচিবসহ দফতরে রয়েছে ১১জন কর্মকর্তা-কর্মচারি। এছাড়া বাড়ি গাড়ি তো থাকছেই। তবে বাড়ি না নিলে তার জন্য পাবেন আলাদা ভাতা। জাপা সূত্র বলছে, বিশেষ দূতের জন্য সরকারের দেওয়া গাড়িটি ফিরিয়ে দিয়েছেন এরশাদ। তবে টেলিফোন বিলসহ আরও অনেক রাষ্ট্রীয় সুবিধা পাচ্ছেন তিনি। বিদেশ ভ্রমণে পাবেন আলাদা ভাতাও। থাকছে ইন্সুরেন্স ও স্বাস্থ্যসেবারও সুবিধা।
প্রোব/বিএইচ/জাতীয়/১০.০৪.২০১৪

১০ এপ্রিল ২০১৪ | জাতীয় | ১৬:০৮:৩৮ | ১৮:৪০:০৬

জাতীয়

 >  Last ›