A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচন আংশিকভাবে বাতিল হতে পারে | Probe News

india 12সুতীর্থ গুপ্ত, প্রোবনিউজ, ভারত থেকে : পশ্চিমবঙ্গের সাত আমলাকে শাস্তিমূলক বদলির যে নির্দেশ নির্বাচন কমিশন দিয়েছে তা রাজ্য সরকার না মানলে নির্বাচন কমিশন কঠোর পদক্ষেপ নিতে পারে।
এই পদক্ষেপের মধ্যে রয়েছে সংশ্লিষ্ট জেলার নির্বাচন বাতিল কিম্বা সংশ্লিষ্ট জেলাগুলির নির্বাচন পিছিয়ে দেওয়া কিম্বা পরবর্তী সময়ে উপনির্বাচনের ব্যবস্থা করা । নির্বাচন কমিশন রাজ্য সরকার ২৪ ঘন্টার মধ্যে কি পদক্ষেপ নেয় তা দেখেই ব্যবস্থা নেবে বলে জানা গেছে। ভারতের উপ-নির্বাচন কমিশনার অলোক শুক্লা স্পষ্ট করে জানিয়েছেন, নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘোষণা হওয়ার পর থেকে রাজ্যগুলির প্রশাসন নির্বাচন কমিশনের আওতায় চলে আসে। সংবিধানের৩২৪(১) ধারায় বলা হয়েছে লোকসভা, বিধানসভা, প্রেসিডেন্ট, ও ভাইস পেসিডেন্ট নির্বাচনের ভোটার তালিকা তৈরি থেকে নির্বাচন পরিচালনা পর্যন্ত যাবতীয় কাজের তত্ত্বাবধান, পরিচালনা ও নিয়ন্ত্রনের দায়িত্ব পুরোপুরি নির্বাচন কমিশনের। নির্বাচন কমিশনের কাজে প্রশাসন কোনওভাবেই হস্তক্ষেপ করতে পারে না।

সোমবার নির্বাচন কমিশন পক্ষপাতমূলক আচরণের অভিযোগে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা হিসেবে পশ্চিমবঙ্গের চার জেলার পুলিস সুপারকে নির্বাচনের কাজ থেকে সরিয়ে দিয়েছে। একজন পুলিশ সুপারকে অবশ্য অন্য জেলায় বদলি করা হয়েছে। এছাড়া দুই জেলার এডিএমকে এবং এক জেলাশাসককে নির্বাচনের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।
নির্বাচন কমিশনের এই নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রি মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, তিনি জেলে যেতে রাজি কিন্তু কোন অফিসারকে বদলি হতে দেবেন না। নির্বাচন কমিশনকে সরাসরি চ্যালেঞ্জ জানিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আমি যতক্ষণ দায়িত্বে রয়েছি ততক্ষণ নির্বাচন কমিশন একজনকেও বদলি করতে পারবে না।
রবিবার দেশের মূখ্য নির্বাচন কমিশনার ভিএস সম্পত কলকাতায় বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠকে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির পক্ষ থেকে রাজ্যের বেশ কয়েকজন শীর্ষ পুলিশ কর্তা এবং প্রশাসনিক আধিকারিকের বিরুদ্ধে পক্ষপাতের অভিযোগ করেন। সেই সময়ই মুখ্য নির্বাচনী কমিশনার অভিযোগ খতিয়ে দেখে দ্রুত ব্যবস্থা নেবার কথা জানিয়েছিলেন। সোমবার নির্বাচন কমিশন মালদহ, বীরভূম, বর্ধমান, মুর্শিদাবাদ এবং পশ্চিম মেদিনীপুরের পুলিস সুপারকে বদলির নির্দেশ দিয়েছে । একই সঙ্গে বদলির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে উত্তর চব্বিশ পরগনার জেলাশাসক সঞ্জয় বনশাল এবং পশ্চিম মেদিনীপুরের এডিএম অরিন্দম দত্ত এবং দক্ষিণ ২৪ পরগণার এডিএম অলোকেশ প্রসাদ রায়কে। কিন্তু এই নির্দেশকে সরাসরি মূখ্যমন্ত্রী চ্যালেঞ্জ জানানোয় সাংবিধানিক সঙ্কট তৈরি হওয়ার পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

মমতা যে ভাষায় নির্বাচন কমিশনের নির্দেশের সমালোচনা করেছেন তা সংবিধানবিরোধী কাজ বলে অনেক সংবিধান বিশেষজ্ঞ মনে করছেন। তবে নির্বাচন কমিশন রাজ্যে স্বরাষ্ট্র বা মূখ্যসচিবের চিঠি পাওয়ার পরই পরিস্থিতি বিবেচনায় বৈঠকে বসবেন বলে জানা গেছে। পশ্চিমবঙ্গে আগামী ১৭ এপ্রিল থেকে ৫ ধাপে নির্বাচন হবে।
প্রোব/সুগু/দক্ষিণ-এশিয়া/০৮.০৪.২০১৪

৮ এপ্রিল ২০১৪ | আন্তর্জাতিক | ১৫:২৫:২৭ | ২১:১২:০৪

আন্তর্জাতিক

 >  Last ›