A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

ইরানি রণতরীতে ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র | Probe News

Iran.jpgপ্রোবনিউজ, ডেস্ক: ইরানের ইসলামী বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর (আইআরজিসি) ক্ষুদ্র যুদ্ধ-জাহাজগুলোতে দূরপাল্লার ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করা হয়েছে। ‘ক্বাদের’ নামের এই ক্ষেপেনাস্ত্রের বাংলা ভাবার্থ দাঁড়ায় শক্তিধর। আইআরজিসি’র একজন সিনিয়র কর্মকর্তার বরাতে ইরানভিত্তিক সংবাদমাধ্যম তেহরান রেডিও এ খবর দিয়েছেন।

ইসলামী বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর নৌ-বিভাগের সহকারী কমান্ডার জেনারেল আলী রেজা তাঙ্গসিরি গতকাল (সোমবার) ইরানি বার্তা সংস্থা ফার্সকে জানিয়েছেন, ইরানের নিজস্ব প্রযুক্তিতে তৈরি এইসব ক্ষেপণাস্ত্র ২০০ কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যবস্তু বা শত্রুর জাহাজে আঘাত হানতে সক্ষম। গার্ড বাহিনীর মিল মাই-১৭ মডেলের হেলিকপ্টারগুলোকেও মাঝারি-পাল্লার ক্ষেপণাস্ত্রে সজ্জিত করা হয়েছে বলে তিনি জানান। এইসব ক্ষেপণাস্ত্রের পাল্লা ১৫০ কিলোমিটার।

ইরানের রণতরী, জঙ্গি বিমান ও হেলিকপ্টারগুলোতে ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র ‘ক্বাদের’ মোতায়েন করা হলে দেশটির সামরিক ক্ষমতা অনেক বাড়বে এবং দেশটি সব ধরনের নৌ হুমকি মোকাবেলায় সক্ষম হবে বলে সামরিক বিশ্লেষকরা মনে করছেন। ইরান ২০১০ সালে সর্বপ্রথম এ ধরনের ক্ষেপণাস্ত্র চালু করে। দেশটি বর্তমানে বিপুল পরিমাণে উৎপাদন করছে ক্বাদের। এই ক্ষেপণাস্ত্রের রয়েছে অ্যান্টি-জ্যামিং রাডার সিস্টেম, ডিজিটাল পাইলট সিস্টেম, অত্যন্ত নিখুঁত ন্যাভিগেশন সিস্টেম ও আঘাত হানার ক্ষমতা এবং দ্রুত মোতায়েন করার সুবিধা।

প্রোব/বান/আন্তর্জাতিক ০৮.০৪.২০১৪

৮ এপ্রিল ২০১৪ | আন্তর্জাতিক | ১২:৫৮:৫৫ | ১১:২৮:৩৪

আন্তর্জাতিক

 >  Last ›