A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

বাংলাদেশ-ভারত যৌথ নদী কমিশনের বৈঠক হচ্ছে না চার বছর | Probe News

teesta file photo.jpgপ্রোবনিউজ, ঢাকা: তিস্তায় চুক্তির মাধ্যমে পানির হিস্যা নির্ধারণ ও গঙ্গায় চুক্তি অনুযায়ী পানির দাবিতে বাংলাদেশের রাজনীতি ক্রমে উত্তপ্ত হয়ে উঠলেও গত চার বছর ধরে ভারতকে যৌথ নদী কমিশন ( জেআরসি)’র বৈঠকে বসাতে পারছে না বাংলাদেশ।
গঠনতন্ত্র অনুযায়ী বছরে জেআরসি’র চারটি বৈঠক হওয়ার কথা থাকলেও গত ৪০ বছরে বৈঠক হয়েছে ৩৭টি এবং ২০১০ সালের পর থেকে এ পর্যন্ত একটি বৈঠকও অনুষ্ঠিত হয়নি।
২০১০ সালের ১৮-১৯ মার্চ জেআরসির সর্বশেষ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছিল এবং এই বৈঠকেই তিস্তা চুক্তির খসড়া বিনিময় করেছিল উভয়পক্ষ যদিও মমতা ব্যানার্জির আপত্তির দোহাই দিয়ে সেই চুক্তি স্বাক্ষর থেকে পিছু হটে যায় ভারত। ৩৭তম ঐ বৈঠকেই ২০১১ সালে কমিশনের পরবর্তী বৈঠকের বিষয়ে ঐক্যমত হয় কিন্তু ২০১৪ সালেও সেই বৈঠক নিয়ে teesta 12.jpgঅনিশ্চয়তা আর কাটেনি। বাংলাদেশের পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র বলেছে, চলতি গ্রীষ্ম মৌসুমে তিস্তায় রেকর্ড পরিমাণ সর্বনিম্ন ৫৫০ কিউসেক পানি প্রবাহের মুখে বাংলাদেশ পুনঃপুন জেআরসির বৈঠকের অনুরোধ করলেও ভারত এখনও তাতে কোন ইতিবাচক সাড়া দিচ্ছে না। এমনকি সম্প্রতি পররাষ্ট্র সচিবের ভারত সফরের পরও এ বিষয়ে কোন অগ্রগতি ঘটেনি। উল্লেখ্য, কেবল যৌথনদীগুলোতে প্রয়োজনীয় পানি প্রাপ্তির বিষয়ই নয়Ñরাজশাহী ও রংপুরের সীমান্তবর্তী কয়েকটি নদীতে ভাঙ্গন ঠেকাতে প্রয়োজনীয় বাঁধ নির্মাণের কাজও জেআরসির সম্মিলিত সিদ্ধান্তের অভাবে আটকে আছে বলে জানিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ডের একটি সূত্র।
এ বিষয়ে বাংলাদেশের খ্যাতনামা পানি প্রকৌশলী ম. ইনামুল হক বলেন, ভারতকে জেআরসি’র বৈঠকে আনা যাচ্ছে না মূলত বাংলাদেশের নতজানু ভঙ্গীর কারণে। বাংলাদেশের সরকার ও নাগরিক সমাজের সোচ্চার দাবি ছাড়া ভারত বৈঠকে বসবে বলে মনে হয় না। এই বৈঠক এ কারণেও জরুরি যে, ২০১৪ সালে এসে নদীগুলোর বাংলাদেশ অংশে প্রবাহ এত কমে গেছে যে, পুরানো তথ্য ও সংলাপের আলোকে পানির আলোচনাকে আর এগিয়ে নেয়া যাবে না। অবিলম্বে নতুন বৈঠক প্রয়োজন।
প্রোব/আপা/জাতীয়/০৮.০৪.২০১৪

৮ এপ্রিল ২০১৪ | জাতীয় | ১১:৪২:৪৬ | ১৬:৫৩:২৩

জাতীয়

 >  Last ›