A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

সাঙ্গাকারা-জয়বর্ধনের স্বরণীয় বিদায় | Probe News

Kumer sangakara.jpgপ্রোবনিউজ, ঢাকা : ২৪ বলে ২৪ রান করে সাজঘরে ফিরে গেছেন জয়বর্ধনে। তখনো ব্যাট হাতে মাঠে কুমার সাঙ্গাকারা। মনের মধ্যে কি যেন লুকিয়ে রেখেছেন। বিশ্বের অন্যতম সেরা এই টেস্ট ব্যাটসম্যান টেস্ট ক্রিকেটের মেজাজেই ব্যাটিং করলেন কিছুক্ষণ। ভারতের স্পিনারদের দেখে যেন মনে হচ্ছিলো, এই টেস্ট খেলোয়াড় তাদের কিছুই করতে পারবে না। কিন্তু টি- টোয়েন্টি থেকে বিদায়ের দিনে করলেন অর্ধশত রান। এই অর্ধশতের কারণেই শ্রীলঙ্কা জয় করলো টি-টোয়েন্টির পঞ্চম শিরোপাটি।
শ্রীলঙ্কার দুই ব্যাটিং ভরসা মাহেলা জয়াবর্ধনে ও কুমার সাঙ্গাকারা টি-টোয়েন্টির আন্তর্জাতিক অঙ্গন থেকে বিদায় নেয়ার কথা জানিয়েছিলেন আগেই। ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম সংস্করণের সবচেয়ে মর্যাদার আসরের শিরোপা জিতে রাজকীয় বিদায়ই পেলেন দুই কিংবদন্তী।
‘চার-ছক্কা হইহই বল দৌঁড়াইয়া গেল কই’ ফাইনালে শ্রীলঙ্কার এই দুই ব্যাটসম্যান ব্যাটিংয়ে তাই দেখালেন ক্রিকেট দুনিয়াকে। টেস্টের মতো টি-টোয়েন্টিতেও দুজনের ব্যাটিং ছিল শুদ্ধ। এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালও এর অসাধারণ এক উদাহরণ হয়ে আছে। আর ভারত বড় লক্ষ্য না দিতে পারায় তাদের উদযাপনের জন্য মঞ্চ প্রস্তুতই ছিল।
৩৬ বছর বয়সী জয়াবর্ধনে তার ক্যারিয়ারে ৫৫টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলেছেন। ৩১.৭৬ গড়ে ১ হাজার ৪৯৩ রান নিয়ে এই ফরম্যাটে তিনিই শ্রীলঙ্কার সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক। অন্যদিকে, ফাইনালের সেরা খেলোয়াড় সাঙ্গাকারা তার ক্যারিয়ারে আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলেছেন ৫৬টি। ৩১.৪০ গড়ে ১ হাজার ৩৮২ রান তার।
দুজনই অবসর নেয়ার কারণ হিসেবে দেখিয়েছেন দলে তরুণদের সুযোগ করে দেয়ার বিষয়টি। তাদের বিদায় বেলায় যোগ্য সম্মানই জানিয়েছে উত্তরসূরিরা। ফাইনালের আগে লঙ্কার অধিনায়ক লাসিথ মালিঙ্গা বলেছিলেন, জয়াবর্ধনে আর সাঙ্গাকারার বিদায়টাকে স্মরণীয় করে রাখতেই ট্রফি জিততে চান তারা। ম্যাচ শেষেও অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস বললেন, ‘শ্রীলঙ্কার এই জয় তোমাদের। আমি খুব আনন্দিত যে, পুরো দল সাঙ্গা আর মাহেলার জন্য এমন একটা জয় এনে দিয়েছে।’ স্পিনার রঙ্গনা হেরাথ তো আরো স্পষ্ট করেই বলেছেন, ‘সাঙ্গা আর মাহেলার জন্য সেরা বিদায় এটা।’
সাঙ্গাকারা নিজেও এমন বিদায়ে তৃপ্ত। ম্যাচ শেষে তিনি বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ার শেষ করার জন্য এর চেয়ে ভালো ব্যাপার আর কি হতে পারে।’ জয়াবর্ধনে ম্যাচ শেষে সমর্থকদের প্রতি জানিয়েছেন কৃতজ্ঞতা, ‘পরিবার আর বন্ধুদের ধন্যবাদ। তবে এই জয় শ্রীলঙ্কার সমর্থকদের জন্য। এরা সেই ১৯৯৬ সাল থেকে বড় কোনো শিরোপার জন্য অপেক্ষা করে আছে।’
বিদায়বেলায় সাঙ্গাকারা আর জয়াবর্ধনে অভিনন্দন পেয়েছেন প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়ের কাছ থেকেও। টুর্নামেন্ট সেরা ভারতের ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলি তো মাহেলা আর সাঙ্গাকে বিশেষ অভিনন্দন জানালেন। ধার করলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক ড্যারেন স্যামির কথাগুলো, ঈশ্বর চেয়েছেন সাঙ্গা আর মাহেলার গলাতেই বরমাল্য পড়ুক।
প্রোব/এহ/ খেলা ০৭.০৪.২০১৪

৭ এপ্রিল ২০১৪ | খেলা | ১১:২৩:২৬ | ২০:০৪:৪২