A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

এসএমই খাতে সব ধরনের সহায়তা করবে সরকার | Probe News

sme.jpgপ্রোব নিউজ, ঢাকা: ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প আমাদের অর্থনীতির মূল চালিকা শক্তি। তাই এ খাততে টেকসই ও শক্তিশালী করতে যা যা দরকার সব দিতে সরকার প্রস্তত বলে জানিয়েছেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। শুক্রবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্র পাচঁ দিনব্যাপী তৃতীয় জাতীয় এসএমই মেলার উদ্বোধনী ভাষণে তিনি এ কথা জানান।
আমু বলেন, মুক্তবাজার অর্থনীতির ফলে এ খাতটি ধারা ক্রমেই শক্তিশালী ও গতিশীল হচ্ছে। তাই আমাদের এর সঠিক ব্যবহার করতে হবে। তিনি বলেন, বর্তমান শিল্পের প্রায় ৯০ ভাগ এসএমই শিল্পের আওতাভূক্ত। জিডিপি বা মোট দেশজ উৎপাদনের এসএমই শিল্পখাতের অবদান শতকরা ২৫ ভাগ। এ খাতকে অরো সমৃদ্ধ করতে সরকার সবধরনের সহযোগিতা করবে বলেও জানান তিনি।
মন্ত্রী বলেন, গ্রামভিত্তিক অর্থনীতি জোরদার করে দেশকে স্বাবলম্বী করতে চেয়েছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তিনি চেয়েছিলেন দেশের সকল এলাকায় সুষম বন্টন উন্নয়ন হোক। ভারসাম্যপূর্ণ অর্থনৈতিক উন্নয়নের সুফল গোটা জাতি ভোগ করুক। কিন্তু যড়যন্ত্রকারীর এটি করতে দেয়নি। তাকে সপরিবারে হত্যা করা হয়।
আমু বলেন, পৃথিবীর উন্নত রাষ্ট্রগুলো যেখানে ধারাবাহিকভাবে নেগেটিভ গ্রোথের দিকে যাচ্ছে সেখানে আমরা অব্যাহতভাবে বিশ্বব্যাপী উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে আলোচিত হচ্ছে। নেবেল বিজয়ী অমর্ত্য সেনসহ অনেকেই বাংলাদেশকে দক্ষিণ-এশিয়ার উদীয়মান অর্থনৈতিক শক্তি হিসেবে চিহ্নিত করেছেন। আগামী ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।
মন্ত্রী বলেন, বর্তমানে দেশে শিল্পখাতে শ্রমের অবদান প্রতিবছর ৩.১৭ হারে বাড়ছে। এ ধারা অব্যাহত থাকলে ২০১৫ সালের মধ্যে শতকরা ২৫ ভাগে উন্নীত হবে। এছাড়া দেশজ উৎপাদন শিল্পখাতের অবদান ইত্যেমধ্যে প্রায় ৩২ শতাংশে পৌছেছে। এসএমই ফাউন্ডেশনকে লক্ষ্য করে তিনি বলেন, বর্তমান বাস্তবতাকে মাথাই রেখে উদ্যোক্তাদের নতুন নতুন কর্মসূচি গ্রহন করতে হবে।
তিনি বলেন, দেশের অর্ধেক নারীকে বাদ দিয়ে অর্থনৈতিক উন্নয়নের লক্ষ্য অর্জন সম্ভব নয়। জাতীয় অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রার নারীদের অবদান মাত্র ১০ থেকে ১৫ ভাগ। ব্যবসায় নারীদের অংশগ্রহণ শতকরা ১ ভাগের সামান্য বেশি।
নারীদের শ্রম কাজের মাত্র শতকরা ২৬ ভাগ নিয়োজিত। আর এসএমই খাতে নারী উদ্যোক্তাদের অংশগ্রহণ মাত্র ১০ ভাগ। এ সংখ্যা যত দ্রুত সম্ভব বাড়াতে পারবো আমাদের কাঙ্খিত লক্ষ্যে তত দ্রুত পৌঁছাতে পারবো বলে জানান মন্ত্রী।
পরে তিনি ৫ দিনব্যাপী এ মেলার উদ্বোধন ঘোষণা করেন। এসএমই ফাউন্ডেশনের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ড. সৈয়দ মো. ইহসানুল করিমের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন শিল্প সচিব মঈনউদ্দীন আব্দুল্লাহসহ এসএমই ফাউন্ডেশনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।
প্রোব/মুআ/জাতীয় ০৪.০৪.১৪

৪ এপ্রিল ২০১৪ | জাতীয় | ১৬:০৯:০৪ | ১৬:১৩:১০

জাতীয়

 >  Last ›