A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

আফ্রিদিদের হারিয়ে সেমিফাইনালে গেইলরা  | Probe News

প্রোবনিউজ, ঢাকা : দুই দলের লড়াই বেশ দুই প্রভাবশালী ব্যাটসম্যান। উভয়েই আদিপত্ত দেখিয়েছে এবারের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে। কিন্তু শেষপর্যন্ত সেমিফাইনালের অগ্নি পরীক্ষায় আফ্রিদির পাকিস্তান বিদায় নিলো। আর গেইল আবারো গ্যাংনাম নৃত্যে ক্রিকেট বিশ্বকে আবারো মাতিয়ে ক্যারিবীয়রা ওঠে গেলো সেমিফাইনালে। 

সুপার টেনের প্রথম ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজ জয় পেলেও পরের দুই ম্যাচে পরাজিত হয় গেইলরা। তিন ম্যাচে পাকিস্তান দুই জয় আর এক হার নিয়ে পয়েন্ট তুলনার বিচারে এগিয়ে ছিল। মঙ্গলবার রাতে জয় দিয়ে পরিসংখ্যানের হিসাবে সমান হয়ে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে গতবারের এই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন এগিয়ে গেল দ্বিতীয়বারের মতো ফাইনালের লড়াইয়ের স্বপ্ন নিয়ে। আজ বৃহস্পতিবার প্রথম সেমিফাইনালে ক্যারিবীয়রা মুখোমুখি হচ্ছে শ্রীলঙ্কার।
মঙ্গলবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৬ উইকেটে ১৬৬ রান করে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জবাবে ১৭ ওভার ৫ বলে ৮২ রানে অল-আউট হয়ে যায় পাকিস্তান। লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে স্যামুয়েল বদ্রির ঘূর্ণিতে বিভ্রান্ত হয়ে মাত্র ১৩ রানে ৪ উইকেট হারিয়ে ভীষণ বিপদে পড়ে পাকিস্তান। পরের দিকে ব্যাটসম্যানরাও ভালো না করায় লক্ষ্যের ধারেকাছে যেতে পারেনি দলটি। ৪২ রানেই প্রতিপক্ষের প্রথম ছয় ব্যাটসম্যানকে বিদায় করে শেষ চারের দিকে কোয়ার্টার-ফাইনালে পরিণত হওয়া এই ম্যাচ জয়ের পথে অনেকটাই এগিয়ে যায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শহীদ আফ্রিদি ছিলেন তাই তখনো আশা টিকে ছিল পাকিস্তানের। দুটি বিশাল ছক্কা হাঁকিয়ে শুরুও করেছিলেন তিনি। কিন্তু ৩৬ বলে ১০৪ রানের সমীকরণ মেলানো কঠিন ছিল তার জন্যও। সুনীল নারায়ণে ষোড়শ ওভারে সোহেল তানভীর ও আফ্রিদিকে বিদায় করলে পাকিস্তানের বড় পরাজয় নিশ্চিত হয়ে যায়। এরপর তাদের ইনিংস আর বেশি দূর এগোয়নি। রানের হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে এটি ক্যারিবীয়দের সবচেয়ে বড় জয়। ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে বদ্রি ও সুনীল তিনটি করে উইকেট নেন।
এর আগে ২২ রানে দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানের বিদায়ে শুরুটা ভালো হয়নি ওয়েস্ট ইন্ডিজের। লেন্ডল সিমন্স (৩১) ও মারলন স্যামুয়েলস (২০) চেষ্টা করলেও ৮১ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে শিরোপাধারীরা। সেখান থেকে ডোয়াইন ব্রাভোর সঙ্গে ড্যারেন স্যামির ৩২ বলে ৭১ রানের জুটিতে লড়াইয়ের পুঁজি গড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শেষ ওভারে রান-আউট হওয়ার আগে ২৬ বলে দুটি চার ও চারটি ছক্কার সাহায্যে ৪৬ রান করেন ব্রাভো। ৪২ রানে অপরাজিত থাকেন স্যামি। অধিনায়কের ২০ বলের ইনিংসে ছিল পাঁচটি চার ও দুটি ছক্কা। ব্রাভো, স্যামির ঝড়ো ব্যাটিংয়ে শেষ ৫ ওভার ৮২ রান তুলে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। নিজের শেষ ওভারে ২৪ রান দেন সাঈদ আজমল।
প্রোব/এহ/খেলা ০২.০৪.১৪

২ এপ্রিল ২০১৪ | খেলা | ১৯:৪২:০১ | ১০:১১:৫৬