A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

শর্তপূরণের প্রতিবেদন দুসপ্তা’র মধ্যে | Probe News

GSP.jpgপ্রোবনিউজ, ঢাকা: জিএসপি সুবিধা ফিরে পেতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বেধে দেয়া শর্তপূরণের অগ্রগতি জানাতে যাচ্ছে সরকার। চলতি মাসের ১৫ তারিখের মধ্যে এ প্রতিবেদন জমা দেয়া হবে বলে বাণিজ্য মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ জানিয়েছেন।
মঙ্গলবার সচিবালয়ে ঢাকায় নিযুক্ত মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান ডব্লিউ মজীনার সঙ্গে মতবিনিময় শেষে সাংবাদিকদের এ কথা জানান মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।
২০১৩ সালের ১৯ জুলাই জিএসপি পুনরুদ্ধারের লক্ষ্যে বাংলাদেশ এ্যাকশন প্লান ২০১৩ ঘোষনা করে যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রের দেয়া এ্যাকশন প্লানে ১৬টি শর্ত উল্লেখ করা হয়েছে। ‘শর্তগুলো বাংলাদেশ আন্তরিকতার সঙ্গে এবং অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পূরণ করে যাচ্ছে। বিষয়টি অনুধাবন করতে পেরেছে যুক্তরাষ্ট্র এবং বাংলাদেশের গৃহীত পদক্ষেপে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছে। তারপরও বিষয়টির বাস্তবতা সহানুভূতির সঙ্গে বিবেচনা করে জিএসপি সুবিধা ফিরিয়ে দেয়া হবে’- এমন আশাবাদ ব্যাক্ত করেন তোফায়েল আহমেদ।
তিনি বলেন, তৈরি পোশাক শিল্পের মালিক ও শ্রমিকদের সমস্যা সমাধানের জন্য উভয় পক্ষের প্রতিনিধি নিয়ে একটি কমিটি গঠন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। চলতি এপ্রিল মাসের মধ্যে এ কমিটি গঠন করা হবে। যেখানে উভয় পক্ষের যে কোন সমস্যা আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করা সম্ভ হবে। এমনকি বর্তমানেও শ্রমিক ও মালিকদের মধ্যে সম্পর্কের কোন টানাপোড়েন নেই। খুব ভালো সম্পর্কই বিরাজ করছে দুই পক্ষের মধ্যে।
মন্ত্রী আরো বলেন, বাংলাদেশের তৈরী পোষাক বিশ্ববাজারে জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। পৃথিবীর অনেক দেশ বাংলাদেশের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণের আগ্রহ প্রকাশ করছে। ইতোমধ্যে দক্ষিণ আফ্রিকা, চিলি, ব্রাজিল, জাপান ও চীন বাংলাদেশের সাথে ফ্রি ট্রেড এ্যাগ্রিমেন্ট (এফটিএ) সাক্ষর করেছে। এতে বাংলাদেশের রপ্তানির পরিমাণ বাড়ছে বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমরা আশা করছি শুধু তৈরি পোষাক রপ্তানি করে আগামীতে বিপুল পরিমাণ বৈদেশিক মুদ্রা আয় করা সম্ভব হবে।
প্রসঙ্গত, বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক স্বীকৃত শ্রম অধিকার নিরাপত্তা নিশ্চিত হচ্ছে না মর্মে এ্যামেরিকান ফেডারেশন অব লেবার এন্ড কংগ্রেস অব ইন্ডাষ্ট্রিয়াল অর্গানাইজেশন বা এএফএল-সিআইও ২০০৭ সালে ইউনাইটেড স্টেট ট্রেড রিপ্রেজেন্টটেটিভ বা ইউএসটিআর এ অভিযোগ উত্থাপন করে জিএসপি বাতিলের জন্য আবেদন জানায়।
সে প্রেক্ষিতে ২০০৭, ২০০৯, ২০১২ ও ২০১৩ সালে শুনানী অনুষ্ঠিত হয়। ২০১৩ সালের ২৭ জুন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশকে প্রদত্ত জিএসপি সুবিধা স্থগিত করে। শ্রমিক কল্যাণ ও কর্মপরিবেশের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ওই বছরের ৮ জুলাই জেনেভায় বাংলাদেশ ইউরোপিয় ইউনিয়ন (ইইউ) ও আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থা (আইএলও) এর মধ্যে একটি ‘সাসটেইনেবল কম্প্যাক্ট’ গৃহিত হয়।
প্রোব/শর/জাতীয়/ ১ এপ্রিল ২০১৪

১ এপ্রিল ২০১৪ | জাতীয় | ১৯:১১:৩৫ | ১২:২৮:৫৭

জাতীয়

 >  Last ›