A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

ছাত্রলীগের চাকরি প্রত্যাশীদের আন্দোলনে অচল ইবি | Probe News

IU5.jpgপ্রোবনিউজ, কুষ্টিয়া: চাকরি প্রত্যাশীদের আন্দোলনে অচল হয়ে পড়েছে কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়। চাকরির দাবিতে আন্দোলনাকারীরা বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিবহণ চলাচল বন্ধ করে দেয়ায় এই অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানা গেছে। একই দাবিতে সোমবার রাতে তারা বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল প্রবেশপথে তালা ঝুলিয়ে দেন। এতে রাতেও কোনো বাস ক্যাম্পাসে প্রবেশ করতে পারেনি।
বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাবেক নেতা-কর্মীরা চাকরির দাবিতে ক্যাম্পাসের পরিবহণ চলাচল বন্ধ করে দেয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ও প্রশাসনিক সব কার্যক্রম কার্যত বন্ধ হয়ে গেছে। কুষ্টিয়া ও ঝিনাইদহ থেকে ক্যাম্পাসে বাস আসতে না পারায় অঘোষিতভাবেই বিভিন্ন বিভাগের চূড়ান্ত পরীক্ষাও বাতিল হয়ে গেছে।
ক্যাম্পাস সূত্রে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক কমিটির হিটলার-লেনিন গ্রুপের নেতা-কর্মীরা অবৈধভাবে চাকরির দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বাস ভাঙচুর করেন এবং মূল প্রবেশপথে তালা ঝুলিয়ে দেন।
সোমবার রাত ৮টার দিকে কুষ্টিয়া শহর থেকে ছেড়ে যাওয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব একটি বাস ক্যাম্পাসের প্রধান গেটের সামনে পৌঁছালে সাবেক ছাত্রলীগের হিটলার-লেনিনের নেতৃত্বে ১০/১৫ জন এসে হঠাৎ হামলা চালিয়ে বাসটি ভাঙচুর করে। এতে বাসে থাকা শিক্ষার্থীরা আতঙ্কে ভীত-সন্ত্রস্ত হয়ে দিগ্বিদিক দৌড়ে চলে যায়। এ সময় ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা ক্যাম্পাসের মূল প্রবেশপথে তালা লাগিয়ে বন্ধ করে দেয়ায় কুষ্টিয়া ও ঝিনাইদহ থেকে ক্যাপম্পাস অভিমুখে যাওয়া কোনো পরিবহণ ক্যাম্পাসে ঢুকতে পারেনি।
ইবি থানার সেকেন্ড অফিসার নূর মহম্মদ খান জানান, চাকরির দাবিতে ইবি ছাত্রলীগের সাবেক কমিটির নেতা-কর্মীরা ক্যাম্পাসের গেট বন্ধ করে রেখে সেখানে অবস্থান করছেন।
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. আবদুল হাকিম সরকার জানান, ৩ এপ্রিল কর্মরত শিক্ষকদের পদ্দোনতি ও রুটিন ওয়ার্ক সংক্রান্ত সিন্ডিকেটের বিশেষ সভা আহ্বান করা হয়েছে। এটাকে সামনে রেখে চাকরি প্রার্থী ছাত্রলীগের সাবেক নেতা-কর্মীরা তাদের নিয়োগের দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকটি বাস ভাঙচুরসহ বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল প্রবেশপথে তালা ঝুলিয়ে দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র-শিক্ষকসহ সর্বস্তরে আতঙ্কের সৃষ্টি করেছে।
তিনি বলেন, “আমরা বিষয়টি দ্রুত মীমাংসা করার জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছি। আশা করছি আজকের মধ্যেই এই সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।”
বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের তরফ থেকে পুলিশ প্রশাসনকে জানানো হলে ঘটনার পর থেকে ক্যাম্পাসে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হলেও এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত কাউকে এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।
প্রসঙ্গত, এর আগে এই চাকরি প্রত্যাশীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের উপর দুবার হামলা করেছিল। এছাড়া ক্যাম্পাসে তাদের ভাঙচুরের ঘটনায় এ পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের প্রায় পাঁচ কোটি টাকার ক্ষতি সাধন হয়েছে। এর মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি সরকারি বাস পোড়ানোর ঘটনাও রয়েছে।
প্রোব/পার/জাতীয়/০১.০৪.২০১৪

১ এপ্রিল ২০১৪ | জাতীয় | ১৩:৪২:২৯ | ১৯:৫৯:০৭

জাতীয়

 >  Last ›