A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

বাংলাদেশ-পাকিস্তান মুখোমুখি | Probe News

BD cricket.jpgপ্রোব নিউজ, ঢাকা: টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার টেনে এসে প্রথম লক্ষ্য পূরণ হয়েছে বাংলাদেশের। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ভারতের কাছে হেরে ‘আসল বিশ্বকাপে’ শুরুটা ভালো না হলেও অন্তত একটি জয়ের জন্য মরিয়া বাংলাদেশ।
রোববার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে পাকিস্তানের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। খেলা শুরু হবে সাড়ে তিনটায়।
টানা তিন ম্যাচ জিতে প্রথম দল হিসেবে সেমি-ফাইনাল নিশ্চিত করেছে ভারত। গাণিতিক সুযোগ আছে বাকি চার দলেরই। তবে এই হিসাব মাথায় না রেখে চাপমুক্ত থেকে খেলতে চায় বাংলাদেশ।
অতিথিদের বোলিং আক্রমণকেই সবচেয়ে বড় বাধা মানছেন বাংলাদেশের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। ওদের বিপক্ষে রান পাওয়া কঠিন হবে। এই বিশ্বকাপের অন্যতম সেরা বোলিং লাইনআপ ওদের। টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের বিবেচনায় ওদের ব্যাটিংও খারাপ নয়। আমার মনে হয় কঠিন লড়াই-ই হবে।
পাকিস্তানের বিপক্ষে ছয়টি টি-টোয়েন্টি খেলে সবক’টিতে হারলেও বাংলাদেশকে স্বপ্ন দেখাচ্ছে সাম্প্রতিক ওয়ানডে ম্যাচগুলো। হারলেও গত দুটি এশিয়া কাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত লড়েছে বাংলাদেশ।
উইকেট নিয়ে কোনো অভিযোগ নেই স্বাগতিকদের। অভ্যস্ত উইকেট পেলেও দল এবং ব্যক্তিগতভাবে সেরা ক্রিকেট খেলতে না পারাতেই বাংলাদেশের ভুগতে হচ্ছে বলে মনে করেন সাকিব।
বাংলাদেশের আগের দুটি ম্যাচই ছিল রাতে। রাতের বেলায় ব্যাট করা একটু কঠিনই। দিনের ম্যাচে সে তুলনায় রান পাওয়া সহজ। আগে ব্যাট করলে ১৭০ রানের লক্ষ্য উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান এনামুল হকের।

 

“আগে ব্যাট করলে আমাদের ১৬০/১৭০ রান করতে হবে। এরপর বোলাররা ভালো বল করলে আমাদের যথেষ্ট সম্ভাবনা থাকবে। আর আগে বল করলে ওদের ১৫০ রানের ভেতর বেধে রাখার চেষ্টা করতে হবে। বিশ্বকাপ আমাদের শেষ হয়ে যায়নি, এখনো অর্জনের সুযোগ আছে। আমাদের সেই চেষ্টাই করতে হবে।”

 

গত এশিয়া কাপে পাকিস্তানের বিপক্ষে এনামুলের শতকে ওয়ানডেতে নিজেদের সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়েছিল বাংলাদেশ। টি-টোয়েন্টি সর্বশেষ দেখায়ও সাফল্য পেয়েছিলেন ব্যাটসম্যানরা। সাকিব আল হাসানের ৮৪ রানের ওপর ভর করে ৬ উইকেটে ১৭৫ রানের বড় সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছিল বাংলাদেশ।

 

ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা ব্যর্থ হওয়ার পর তিন সাকিব ও চারে মুশফিককে ফেরাতে পারে বাংলাদেশ। দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান একটা ভালো শুরু এনে দিতে পারলে লড়াই করার মতো এনে দেয়ার সামর্থ্য তাদের রয়েছে।

 

বাংলাদেশ শিবিরে যখন চাপমুক্ত হওয়ার স্বস্তি তখন অতিথি শিবিরে বাঁচা-মরার লড়াইয়ের চাপ। চার পয়েন্ট নিয়ে শিরোপাধারী ওয়েস্ট ইন্ডিজ আপতত দুই নম্বরে আছে। সেমি-ফাইনাল নিশ্চিত করতে হলে প্রতিটি ম্যাচেই জিততে হবে পাকিস্তানকে। অতিথিদের এই চাপই আত্মবিশ্বাস যোগাচ্ছে বাংলাদেশকে।
প্রোব/মুআ/খেলা ৩০.০৩.১৪

 

৩০ মার্চ ২০১৪ | খেলা | ১০:২৮:৫২ | ২০:৩৭:১৮