A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

‘আমরা ভবন চাইনা, খেলার মাঠ চাই’ | Probe News

P1060009.JPGপ্রোব নিউজ, ঢাকা: ধানমন্ডি খেলার মাঠে কোন স্থাপনা নয়। মাঠটি সর্বসাধারনের জন্য উন্মুক্ত করে অবিলম্বে আদালতের রায় কার্যকরের দাবি জানিয়েছে সামাজিক, নাগরিক ও পরিবেশবাদি ২৪টি সংগঠনসহ এলাকাবাসি ও বিশিষ্টজনরা। তারা এই মাঠ রক্ষায় প্রধানমন্ত্রীর কাছে হস্তক্ষেপ চেয়েছেন।

শুক্রবার সকালে ধানমন্ডি খেলার মাঠের সামনে আয়োজিত এক নাগরিক সমাবেশ ও মানববন্ধনে এ দাবি জানিয়েছেন তারা। সকাল ৯টা থেকে দেড় ঘন্টা ব্যাপি এ সমাবেশে ধানমন্ডির এলাকাবাসি সহ নগরির বিভিন্ন প্রান্ত থেকে জড়ো হন সাধারণ মানুষ। তাদের হাতে ব্যানার, বুকে প্লাকার্ড, কপালে ব্যান্ড। তাতে লেখা রয়েছে, ‘ধানমন্ডি খেলার মাঠে কোন স্থাপনা নয়, সকলের খেলার জন্যে উন্মুক্ত মাঠ চাই’; ‘এই খেলার মাঠ ফিরিয়ে দাও’; ‘এই খেলার মাঠ খুলে দাও’ ইত্যাদি সব স্লোগান।
সমাবেশে অংশ স্কুল ছাত্র তন্ময় বলেন, ‘আমরা ভবন চাইনা, চাই খেলার মাঠ’ একই দাবি অপর স্কুল শিক্ষার্থী আসফিনা সুইটির। আর নর্থসাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র তাবরেজ বলেন, স্কুল জীবনে ধানমন্ডি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ে মাঠ পাইনি। খেলার মাঠ বলতে এই ধানমন্ডি মাঠকেই চিনি। কিন্তু ছিনিয়ে নেয়া হয়েছে সেই মাঠ।
ধানমন্ডি পরিবেশ উন্নয়ন জোটের কেন্দ্রীয় নেতা এবং বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউটের সাবেক সভাপতি মোবাশ্বের হোসেনের সভাপতিত্বে সমাবেশে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলনের (বাপা) সাবেক সভাপতি এবং শিক্ষাবিদ অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী বলেন, ধানমন্ডি আবাসিক এলাকার শুরু থেকেই এই মাঠটিকে সর্বসাধারনের জন্যে উন্মুক্ত রাখা হয়েছিল। কিন্তু বিগত কয়েকটি বছর ধরে অবৈধ ভাবে মাঠটিকে দখল করে রেখেছে। এ অবৈধ দখলদারদের হাত থেকে মাঠটি মুক্ত করতে আন্দোলন চালিয়ে যাবারও কথা বলেন প্রবীণ এই শিক্ষাবিদ।
শিক্ষাবিদ এবং বিশ্ব সাহিত্য কেন্দ্রের প্রধান অধ্যাপক আব্দুল্লাহ আবু সায়ীদ বলেন,‘ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রয়াত ছোট ভাই শেখ হাসিনার প্রয়াত ছোট ভাই শেখ জামালের নামে ‘শেখ জামাল ক্লাবের’ কথা বলে একটি গোষ্ঠী মাঠ দখলের পায়তারা করছে। তার এরইমধ্যে মাঠে স্থাপনা নির্মানের কাজ শুরু করেছে। তাই আমরা এই মাঠ রক্ষায় প্রধানমন্ত্রীকে উদ্যোগ নেয়ার অনুরোধ করছি।’
বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব প্লানার্স-এর সাধারন সম্পাদক ড. আক্তার মাহমুদ বলেন, ধানমন্ডি খেলার মাঠ এলাকাবাসির, সকলের। বিশেষ কোন শ্রেণি-পেশা বা গোষ্ঠির নয়। তারপরও একটি মহল বঙ্গবন্ধুর পরিবার ও সন্তানের নাম ভাঙ্গিয়ে এ মাঠ দখল করে নিয়েছে। আর এই মাঠ এখনই দখল মুক্ত হওয়া প্রয়োজন বলে উল্লেখ করেন স্থপতি ও নগর পরিকল্পনাবিদ সালমা এ শফি। তিনি বলেন, ক্ষমতাশালীদের হাত থেকে এ মাঠ রক্ষা করা না গেলে নগরির কোন মাঠই দখলদারদের হাত থেকে রক্ষা যাবে না। একই ঘটনা সর্বত্রই দেখতে হবে।
P1060007.JPGদখলদারদের হাত থেকে মাঠ মুক্ত করতে এবং মাঠে নগরবাসির অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে মাঠের গেটে তালা ঝুলানোর পরামর্শ দেন আইসিডিডিআর,বি-এর কর্মকর্তা ফারজানা শাহনাজ মজিদ। তিনি বলেন, এ মাঠ আমাদের। মাঠের গেটে যদি তালা ঝুলাতে হয় সে অধিকার কেবল আমাদেরই রয়েছে। অন্য কারো নয়।
আর বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন-বাপা’র যুগ্ম সম্পাদক ইকবাল হাবিব বলেন‘, আদালতের নির্দেশ অমান্য করে দখলদাররা মাঠে স্থাপনা নির্মাণ করছে। আদালত ধানমন্ডি মাঠকে সাধারনের জন্য উন্মূক্ত রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। দখলদাররা আদালতের নির্দেশ মানছেনা। তারা মাঠের গেটে পাহারাদার বসিয়েছে।’
এদিকে সমাবেশ চলাকালিন সময়ে ব্যানার, ফ্যাস্টুন ও প্লাকার্ড নিয়ে মাঠের চারদিক প্রদক্ষিণ করে সার্চ স্কেটিং ক্লাবের সদস্যরা। তখনও মুখে তাদের স্লোগান ‘খেলার মাঠে বাঁচতে চাই’।
সভাপতির বক্তব্যে স্থপতি মোবাশ্বের হোসেন বলেন, খেলার মাঠ, উন্মুক্ত স্থান ও জলাধার রক্ষায় বর্তমান প্রধানমন্ত্রিই আইন করেছেন। ধানমন্ডি খেলার মাঠ রক্ষার মাধ্যমে আমরা প্রধানমন্ত্রির দেয়া প্রতিশ্রুতি ও আইনের বাস্তবায়ন দেখতে চাই।
সমাবেশে অংশ নিয়েছে, বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা), বাংলাদেশ স্থপতি ইনস্টিটিউট (আইএবি), আইন ও সালিশ কেন্দ্র, বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতি, সেন্টার ফর আরবান স্টাডিজ, নিজেরা করি, গ্রীণ ভয়েস, নিরাপদ ডেভেলপমেন্ট ফাউন্ডেশন, বাংলাদেশ এনভায়রনমেন্টাল ইঞ্জিনিয়ার্স এসোশিয়েশন, ডাব্লিউবিবি ট্রাস্ট, সবুজ পাতা, সুন্দর জীবন,ব্লূপ্ল্যানেট। ইনিশিয়াটিভ, সিডাস, উন্নয়ন ধারা ট্রাস্ট, সিটিজেন রাইটস মুভমেন্ট, সেবা, আদি ঢাকাবাসী ফোরাম, পুরান ঢাকা পরিবেশ উন্নয়ন ফোরাম, পিস, পরিবর্তন চাই, বারসিক, ঢাকা যুব ফাউন্ডেশন-সহ বিভিন্ন সংগঠন সমূহ।
প্রোব/শর/জাতীয়/ ২৮ মার্চ ২০১৪

 

২৮ মার্চ ২০১৪ | জাতীয় | ১৩:৩৯:০৭ | ২২:৫৯:৫৭

জাতীয়

 >  Last ›