A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

দিল্লিতে প্রতিদিন ৬টি ধর্ষন মামলা | Probe News

দিল্লিতে প্রতিদিন ৬টি ধর্ষন মামলা

প্রোবনিউজ, ডেস্ক: ভারতের রাজধানী দিল্লিতে পুলিশের কাছে প্রতিদিন গড়ে ১৪টি উত্যক্তকরণ ও ৬টি ধর্ষনের অভিযোগ করেন ভুক্তভোগীরা। পুলিশের দাবি, এ ধরণের ৯০ শতাংশ মামলা সমাধান করতে সক্ষম হয়েছে তারা। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই পরিচিত কারও দ্বারাই এসবের শিকার হন নারীরা। এ খবর দিয়েছে ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস। এ বছরের প্রথম নয় মাসের তথ্য উপাত্ত প্রকাশ করেছে দিল্লি পুলিশ। সে অনুযায়ী, রাজধানীতে প্রতিদিন ৬টি ধর্ষণের মামলা ও ১৪টি উত্যক্তকরণের মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগীরা। অপরদিকে ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরো’র (এনসিআরবি) দেয়া উপাত্ত অনুযায়ী, ২০১৩ ও ২০১৪ সালের মধ্যে নথিভুক্ত ধর্ষণের মামলাগুলোর মধ্যে ৩৬৪টির ক্ষেত্রে ১০ বছর বা তারও কমবয়সী মেয়েরাই ভুক্তভোগী! এ বছরের উপাত্ত এখনও প্রকাশ প্রকাশ করেনি এনসিআরবি। তবে শিশু অধিকার নিয়ে কাজ করা বিভিন্ন সংগঠনের কর্মীদের দাবি, শিশুদের বিরুদ্ধে এ ধরণের অপরাধ বরং বেড়েছে। এক জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা জানান, ২০১২ সালের ডিসেম্বর থেকে ২০১৪ সালের মার্চ পর্যন্ত শিশুদের প্রতি যৌন অপরাধের দায়ে দিল্লি পুলিশের দ্বারা নথিভুক্ত মামলার সংখ্যা ১৪৯২টি। পুলিশের দাবি, ধর্ষণ ও উত্যক্তকরণের মামলাগুলোর ৯০ শতাংশ তারা সমাধান করতে সক্ষম হয়েছেন। এগুলো সাধারণত ভুক্তভোগীদের পরিচিত কারো দ্বারাই ঘটে।

এ বছরের শুরু থেকে ১৫ই সেপ্টেম্বর পর্যন্ত দিল্লি পুলিশের কাছে ১৫৫৭টি ধর্ষণ ও ৩৮৭৬টি উত্যক্তকরণের মামলা দায়ের হয়েছে। ২০১৪ সালের পুরো বছর ধর্ষণ মামলা দায়ের হয়েছে ১৫৫১টি ও উত্যক্তকরণের মামলা ৩০৭৬টি। এবার ৯ মাসেই গতবছরের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে। ২০১৩ সালে ১৬৩৬টি ধর্ষণ মামলা ও ৩৫১৫টি উত্যক্তকরণের মামলা রুজু হয় দিল্লিজুড়ে। পুলিশ জানিয়েছে, বেশিরভাগ মামলাই সমাধান হয়েছে। অভিযুক্তরা আটক হয়েছে। যেহেতু অভিযুক্তরা ভুক্তভোগীদের পূর্বপরিচিত থাকেন বেশিরভাগ ক্ষেত্রে, সেহেতু এসব মামলা প্রতিরোধ তুলনামূলকভাবে বেশি কঠিন। তিনি এ-ও বলেন, ভুক্তভোগীদের অপরিচিত কারও দ্বারা এসব অপরাধ ঘটে খুবই কম।

প্রোব/পি/দক্ষিণএশিয়া/১৮.১০.২০১৫

 

১৮ অক্টোবর ২০১৫ | দক্ষিণ এশিয়া | ১৪:৫৭:৫৩ | ১১:১৩:০৮

দক্ষিণ এশিয়া

 >  Last ›