A PHP Error was encountered

Severity: Notice

Message: Only variable references should be returned by reference

Filename: core/Common.php

Line Number: 257

ভারতে হত্যার পর পুড়িয়ে ফেলা হল আরেক সাংবাদিককে | Probe News

ভারতে হত্যার পর পুড়িয়ে ফেলা হল আরেক সাংবাদিককে

প্রোবনিউজ, ডেস্ক: মামলা প্রত্যাহারে অস্বীকৃতি জানানোর পর সন্দেহভাজন অবৈধ খনি চক্রের হত্যাকাণ্ডের শিকার হলেন ভারতের মধ্যপ্রদেশের এক সাংবাদিক। পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, শ্বাসরোধ করে হত্যার পর সন্দ্বীপের মরদেহটি পুড়িয়ে ফেলে হত্যাকারীরা। হত্যাকাণ্ডের অভিযোগে এরইমধ্যে দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

পুলিশের বরাতে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার অপহৃত হওয়া সাংবাদিক সন্দ্বীপ কোঠারিকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়। পরে শনিবার রাতে মহারাষ্ট্রের ওয়ার্দা জেলায় কোঠারির জ্বলন্ত দেহ খুঁজে পাওয়া যায়।

হত্যাকাণ্ডের অভিযোগে বিশাল ডান্ডি এবং ব্রিজেশ দুহারওয়াল নামে দুই সন্দেহভাজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। রাকেশ নাসভানি নামে আরেক সন্দেহভাজন এখনও নিখোঁজ রয়েছে।

পুলিশ সূত্রের বরাতে এনডিটিভি জানায়, অবৈধ খনি কর্মকাণ্ড এবং চিট ফান্ড কোম্পানির সঙ্গে জড়িত ছিল তিন সন্দেহভাজন। গ্রেফতারকৃতরা পুলিশের কাছে এরইমধ্যে দায় স্বীকার করেছে।

সন্দ্বীপ কোঠারির ভাই জানান, গ্রেফতারকৃতরা ম্যাংগানিজ মাফিয়া চক্রের সঙ্গে জড়িত এবং সন্দ্বীপ তাদের অবৈধ কর্মকাণ্ডগুলো প্রকাশ করেছিলেন। মামলা তুলে নিয়ে নেয়ার জন্য বেশ কিছুদিন ধরে সন্দ্বীপ চাপের মুখে ছিলেন বলেও জানিয়েছে পরিবার।

জাবালপুরভিত্তিক একটি হিন্দি দৈনিকে কাজ করতেন ৪০ বছর বয়সী সন্দ্বীপ। শুক্রবার এক বন্ধুর সঙ্গে বাইকে করে বাড়ি ফেরার পথে অপহৃত হন তিনি। অপহরণকারীরা একটি প্রাইভেট কার দিয়ে বাইকে ধাক্কা দেয় এবং সে গাড়িতে করে সন্দ্বীপকে তুলে নিয়ে যায়। পুলিশ জানায়, ওই গাড়িতেই সন্দ্বীপকে হত্যা করা হয়েছে এবং গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়েছে। পরে তাকে ওয়ার্দা এলাকায় পুঁতে ফেলা হয়।

চলতি মাসের শুরুর দিকে জগেন্দর সিং নামে উত্তর প্রদেশের এক সাংবাদিকের গায়ে আগুন ধরিয়ে দিয়েছিল পুলিশ। এর এক সপ্তাহ পর মারা যান তিনি।

প্রোব/পি/দক্ষিণএশিয়া/২২.০৬.২০১৫

 

২২ জুন ২০১৫ | দক্ষিণ এশিয়া | ১২:২২:০৮ | ১২:২৫:৫৩

দক্ষিণ এশিয়া

 >  Last ›